সমগ্র বিশ্বে মহামারি আকার ধারণ করছে করোনা ভাইরাস। এর থাবায় প্রতিদিনই মৃত্যুর মিছিলের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। সেই সঙ্গে সাধারণ মানুষের মনে বাড়ছে আতঙ্ক, ঝুঁকি ও নিরাপত্তাহীনতা। এই মারণ ভাইরাসের থাবায় মানুষের শারীরিক অবনতিই নয় পড়ে গিয়েছে বিশ্বের অর্থনীতিও। করোনা নিয়ে আতঙ্কিত না হয়ে সচেতনতার পরামর্শ দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা হু।  এ পর্যন্ত গোটা বিশ্বে মোট করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লক্ষ ৭৯ হাজার ৮০ জন। এ পর্যন্ত ১৬,৫২৪ জনের প্রাণ কেড়েছে এই ভাইরাস। ভারতে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৪৯৯ আর মৃত্যু হয়েছে ১০ জনের।

আরও পড়ুন- করোনা ভাইরাস পরীক্ষার কিট মিলবে সস্তায়, নতুন দিশা দেখাল আইআইটি দিল্লি

বর্তমানে করোনা ভাইরাস নিয়ে বহু মন্তব্য বা গুজব ছড়িয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। তাতে জানা গিয়েছে খবরের কাগজ বা অনলাইনে কেনা প্যাকেটজাত দ্রব্য থেকে ছড়াতে পারে এই মারণ রোগের সংক্রমণ। এই তথ্য প্রচারের সঙ্গে সঙ্গেই বহু বাড়িতে বন্ধ হয়ে গিয়েছে অনলাইনে বেচা-কেনা সেই সঙ্গে বন্ধ হয়েছে সংবাদপত্রের বিক্রিও। একদম কোনও গুজবে কান না দিয়ে জেনে নিন এই বিষয়ে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকেরা কী বলছেন-

আরও পড়ুন- করোনা সংক্রমণ থেকে কীভাবে দূরে থাকবেন, হাতের কাছে রাখুন এই চারটি জিনিস

এইমসের ডিরেক্টর ডঃ রণদীপ গুলেরিয়া জানিয়েছেন, "করোনা ভাইরাস খুব বেশি সময় অবধি কাগজের উপর জীবিত থাকতে পারে না। তাই কোনও ভাবেই সংবাদপত্রের দ্বারা করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা খুব কম।" এখনও পর্যন্ত কোনও গবেষণায় প্রমাণ হয়নি যে সংবাদপত্রের মধ্যে করোনাভাইরাস সজীব থাকে এবং তা ছড়াতে পারে। এই মারণ ভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে প্রতি ঘন্টায় নিয়মিত হ্যান্ড ওয়াশ করুন ও অ্যালকোহল বেসড হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করুন। পরিস্কার পরিচ্ছন্নভাবে ঘরে থাকুন।