অন্দরসজ্জা সাজানোর জন্য আমরা কত কিছুই না ব্যবহার করি। নিজের বাড়ির একঘেয়েমি কাটাতে বিভিন্ন রকম এক্সপেরিমেন্ট করতে সকলেই কম-বেশি আগ্রহী। কোনও জায়গায় ঘুরতে যাওয়া মানেই সেখানকার স্পেশ্যাল আইটেম সবার আগে কিনতে হবে ঘর সাজানোর জন্য। কিন্তু একটু একটু করে কিনতে কিনতে একসময় যেন পাহাড়ের স্তুপ মনে হয়। ঘরের চারিদিকে শুধু বিভিন্ন ধরনের জিনিস। সেটা দেখতে দেখতে কেমন যে একঘেয়ে লাগে। এবার এগুলি পরিবর্তনের পালা। মূল্যবান কোনও শো-পিস বা দেওয়াল হ্যাঙ্গিং নয়, বরং তার বদলে বেছে নিন কিছু ইন্ডোর প্লান্ট। এতে যেমন ঘরের শোভা বাড়বে তার পাশাপাশি শরীর ও মন দুটিই বোশ তরতাজা থাকবে।

আরও পড়ুন-সব্জির মূল্যবৃদ্ধিতে মাথায় হাত মধ্যবিত্তের, জেনে নিন আজকের বাজারদর...

সারাদিন ক্লান্তি যেন বাড়ির দরজাতে শেষ হয়ে যায়।  ক্লান্তি কাটাতে ফ্রেশ হওয়াটা সবার আগে জরুরি। অনেকেই আছেন  যারা ঘরের মধ্যে রুম ফ্রেশনার বা দামী কোনও সুগন্ধী ব্যবহার করেন, যাতে ঘরের মধ্যে একটা ফ্রেশভাব বজায় থাকে। এই পদ্ধতি আর নয়। তার বদলে একটি ল্যাভেন্ডার গাছ কিনে এনে ঘরের এক কোণায় বসিয়ে রাখুন। ল্যাভেন্ডারের মিষ্টি গন্ধে আপনি এমনিতেই ফ্রেশ এবং তরতাজা থাকবেন। মুহূর্তে ক্লান্তি দূর করতে ম্যাজিকের মতোন কাজ করে এই গাছ।

যত দিন যাচ্ছে কংক্রিটের দেওয়ালও তত সংকীর্ণ হচ্ছে। ফ্ল্যাটের চার দেওয়ালের মধ্যেই কেমন আবদ্ধ হয়ে যাচ্ছে এই জীবন। কিন্তু শান্তির নীড়ের খোঁজে বেশি কিছু করতে হবে না। ছোট্ট কোজি বারান্দাই যথেষ্ঠ এর জন্য। বারান্দার একটি কোণে বানাতে পারেন আপনার স্বাদের ছোট্ট বাগানটি। তার জন্য খুব বোশি পরিশ্রমেরও দরকার হয় না। দিনের বেলা ১০ মিনিটই যথেষ্ঠ।

আরও পড়ুন-শুধু ওজন কমানোই নয়, বয়সের ছাপ রুখতে ম্যাজিকের কাজ করে জিরে...

ড্রয়িং রুমের মধ্যে  একটি কর্ণার করে সুন্দর একটি কাচের জারের মধ্যে কিছু জলজ গাছও রাখতে পারেন। এখন বিভিন্ন রঙের জার বেরিয়ে গেছে। যা ঘরের সৌন্দর্যকে আলাদা মাত্রা দেব। যেমন ওয়াটার লেটুস, আমব্রেলা পাম, প্যারটস ফেদার, ওয়ান্ডারিং জু , মানিপ্লান্ট ইত্যাদি এই ধরনের গাছও লাগাতে পারেন।এছাড়া অ্যাকোয়াটিক প্লান্টের জনপ্রিয়তাও খুব বেড়েছে। যেমন ওয়াটার লেমন গ্রাস, নানা ধরনের শালুকও কিনতে পারেন। যে কোনও ভাল নার্সারিতে গেলেই এই গাছগুলি পেয়ে যাবেন। তাহলে দেখে তো ঘর সাজাতে খুব বেশি জিনিসের দরকার পড়ে না। একটু বুদ্ধি খাটিয়ে অল্প জিনিস দিয়েই অভিনব কায়দায় সাজিয়ে ফেলা যায় আপনার সাধের বাড়িটি।