বছর কেটে গেলেও মহামারী পিছু ছাড়ছে না পিছন থেকে। করোনা ভাইরাসের করাল থাবার পাশাপাশি একের পর এক নয়া ভাইরাস নিয়ে ক্রমশ চিন্তার ভাঁজ পড়ছে চিকিৎসক থেকে সাধারণ মানুষের কপালে। ফের মারণ সংক্রমণ শুরু হয়েছে বলিভিয়ায়। সম্প্রতি ইউনাইটেড স্টেটস সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) সেই খবর প্রকাশ্যে এসেছে। করোনা ভাইরাসের মতোনই এই ভাইরাস একজনের দেহ থেকে অন্য দেহে ছড়িয়ে পড়ছে মুহূর্তের মধ্যে । সুতরাং সংস্পর্শে এলেই বাড়ছে সংক্রমণের আশঙ্কা। 

আরও পড়ুন-সর্বনাশ, এই ৫ ফল খেলেই ভবিষ্যতে হতে পারে মারাত্মক ক্ষতি...

ইবোলা ভাইরাসের মতোই জ্বরের উপসর্গ তৈরি করে এই ভাইরাসটি। ২০০৪ সালে খুব সামান্য জায়গায় এই সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়েছিল। বলিবিয়ার উত্তরে লা পাজ প্রদেশের ছাপারে অঞ্চলে এই ভাইরাল সংক্রমণ শুরু হওয়ায় একে ছাপারে ভাইরাসও বলা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই না তথ্য প্রকাশ্যে আসতেই জোর জল্পনা শুরু হয়েছে। কারণ এই রোগে মৃত্যুরও প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে। এই তথ্য প্রকাশ্যে আসতেই আতঙ্ক বাড়ছে।

আরও পড়ুন-রাতে ঘুমানোর আগে এক ফোঁটা গ্লিসারিন, মুক্তি পাবেন হাজারো সমস্যা থেকে...

করোনা ভাইরাসের মতোই এর উপসর্গ রয়েছে। প্রথমে জ্বর,বমি, গায়ে ব্যথা, পেটে ব্যথা  সমস্ত উপসর্গই রয়েছে। সিডিসি-র এপিডেমিওলজিস্টরা বলছেন, বডি ফ্লুইডের মাধ্যমে এই ভাইরাস সংক্রমিত হতে পারে। এখনও করোনা ভ্যাকসিনের আশায় গোটা বিশ্ব, তার মধ্যেই নয়া সংক্রমণের খবর গোটা বিশ্বজুড়ে ভয়ের কারণ হয়ে দাড়িয়েছে। যত দিন যাচ্ছে ততই যেন করোনার নয়া রূপ সামনে আসছে। সারা বিশ্ব জুড়ে দাঁপিয়ে বেড়াচ্ছে এই করোনা ভাইরাস। করোনা ভাইরাসের আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশই যেন বাড়ছে। মুহূর্তের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ছে এই ভাইরাস। মৃত্যুর মরণ খেলায় সবাই কাঁপছে। এর মধ্যেই নয়া আতঙ্ক ছড়িয়েছে সকলের মধ্যে।