ফেব্রুয়ারি মাসের ৭ তারিখে উত্তরপ্রদেশের নয়ডায় শুরু হচ্ছে অটো এক্সপো ২০২০। চলবে এই মাসেরই ১২ তারিখ অবধি।  যে গাড়িগুলো প্রদর্শনীতে জায়গা পাবে তাদের নাম ও বৈশিষ্ট্য-এর আগাম ঝলক তুলে ধরতে চাইছি আমরা-

টাটা গ্র্যাভিটাস- এই গাড়ি পুরনো হ্যারিয়ার এস ইউ ভি-এর নতুন ধরণ যা সেভেন সিটার।  দেখতেও হ্যারিয়ারের মতোই। জেনিভা মোটর শো-এ এর দেখা মিলেছিল। গ্র্যাভিটাস টাটার নতুন এস ইউভি ফ্ল্যাগশিপ।

টাটা হ্যারিয়ার ২০২০- আত্মপ্রকাশের এক বছর পরে কিছু নতুন ফিচার যুক্ত হয়েছে। বিএস৬ ডিজেল ইঞ্জিন , অটোমেটিক ট্রান্সমিশন অপশন, বড়ো চাকা এবং প্যানারোমিক সানরুফ যুক্ত হয়েছে নতুন ভার্সানে।

টাটা অল্ট্রোজ ইভি- অল্ট্রোজ ইভি হল নতুন প্রিমিয়াম হ্যাচব্যাকের ইভি ভার্সান । ২০২১ এ আসবে অল্ট্রোজ ইভি।

টাটা এইচ২এক্স- এরও আত্মপ্রকাশ ঘটেছিল ২০১৯ সালে জেনিভা মোটর শো-এ। এবারের এক্সপোয় টাটা নিয়ে আসছে টাটা এইচ২এক্স মাইক্রো এসইউভি মডেলের প্রি-প্রোডাকশন ভার্সান।  এই গাড়ি নেক্সনের থেকে ছোটো হবে এবং রেনল্ট কিউইডের মূল প্রতিদ্বন্দী হিসেবে বাজারে আসছে এইচ২এক্স। ২০২০ সালের শেষের দিকে এই গাড়ি লঞ্চ করা হবে।

মাহিন্দ্রা এক্সইউভি৫০০ ইভি-  মাহিন্দ্রা এবারের এক্সপোতে অনেক বৈদ্যুতিক গাড়ির সম্ভার নিয়ে হাজির থাকবে। নেক্সট জেন এক্সইউভি৫০০-এর প্রিভিউ থাকবে সঙ্গে।

মাহিন্দ্রা এক্সইউভ৩০০ ইভি- এক্সইউভ৩০০ ইভি-এর প্রি-প্রোডাকশন শোকেস থাকবে। নেক্সন ইভি-এর মূল প্রতদ্বন্দী হবে মহিন্দ্রার এক্সইউভ৩০০ ইভি যার প্রত্যশিত রেঞ্জ হবে মোটামুটি ৩০০ কিমি।

মহিন্দ্রা ইকেইউভি১০০- মাহিন্দ্রার বৈদ্যুতিক গাড়ির পরিসরে একেবারে নতুন রেঞ্জ এটি। এই গাড়ির দাম শুরু হচ্ছে ৯,০০০ লাখ টাকা থেকে যা মধ্যবিত্তের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যেই।

এমজি হেক্টর ৬ সিটার- এই গাড়িতে ৩টি রো থাকবে। এটি মাঝারি মাপের এসিউভি। এই ৬ সিটার গাড়িটি লঞ্চ করা হবে ২০২০ সালের মাঝামাঝি।

এমজি গ্লস্টার- ম্যাক্সাস ডি৯০-এর নাম হবে এমজি গ্লস্টার। এটি প্রিমিয়াম ৩ রো এসইউভি। টয়োটা ফাউন্ডার এবং ফোর্ড এন্ডেভার-কে প্রতিযোগিতায় ফেলবে এই গাড়ি। হয়তো এই বছরের শেষের দিকে লঞ্চ করা হবে এমজি গ্লস্টার।

এমজি ১০ এমপিভি- তিনটি রো -এর এসইউভি থেকে এমপিভি জি ১০ কঠিন লড়াইয়ে ফেলবে টয়োটা ইনোভা ক্রিস্টা-কে। এটি গ্লোবাল স্পেক মডেল যাতে ভিন্ন বসার আয়োজন করা যাবে। ১০ জন যাত্রী এই গাড়িতে বসতে পারবে। ভারতে খুব শীঘ্রই আসছে এই গাড়ি।

এমজি ভিশন- আই কনসেপ্ট- বৈদ্যুতিক ভার্সানের নাম ভিশন আই। এমপিভি-এর মতোই স্টাইলিং কিন্তু গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স আরবান এসইউভি-এর মতোই। এমজি-এর ৫জি ক্ষমতা এই গাড়ির মাধ্যমে প্রদর্শিত হবে।

এমজি মার্ভেল এক্স - মার্ভেল  এক্স হল প্ল্যাটিনাম বৈদ্যুতিক এসইউভি, এই গাড়িতে থাকছে সেমি-অটোনোমাস ড্রাইভিং অ্যাসিস্ট সিস্টেম এবং সম্ভবত ৪০০কিমি রেঞ্জ থাকছে এই মডেলটির।

এমজি আরসি-৬ - এই গাড়ি আগেই চীনে আত্মপ্রকাশ করেছে। সেডান বডি থাকবে, স্লোপিং রুফলাইন এবং বাড়তি গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স থাকছে। ২০২১ সালে আসবে এই  গাড়ি।