নিরামিষ খাবারে রয়েছে অনেকেরই অরুচি। তবে যদি তা সুস্বাদু নিরামিষ পদ হয়, সেক্ষেত্রে কোনও সমস্যা থাকার কথা নয়। তাই নিরামিষ অথচ সুস্বাদু পদ বলতে আমরা অনেক রকমের পদের বিষয়ে জানি। নিরামিষের তালিকায় পনিরের নাম থাকবেই। তবে আলু দিয়ে একঘেয়ে পনির না বানিয়ে চেখে দেখতে পারেন, ভিন্ন স্বাদের পনিরের এই পদ। আমরা সাধারণত রেস্তোরাঁতেই এই পদ খেয়ে থাকি। পনিরে রয়েছে প্রচুর পরিমানে ক্যালসিয়াম, সোডিয়াম-সহ শরীরের প্রয়োজনীয় পুষ্টিগুণ, যা স্বাস্থ্য রক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। তাই যদি চটজলদি নিরামিষ খাবার খাইয়ে যদি সবাইকে তাক লাগিয়ে দিতে চান তবে একবার বানিয়ে দেখতেই পারেন পনির বাটার মশালা। খুব সহজেই এই পদ বানিয়ে নিতে দেখে নিন এর সহজ রেসিপি। 

পনির বাটার মশালা বানাতে লাগবে-

আরও পড়ুন- শীতের দুপুরে লাঞ্চ জমে উঠুক মুখরোচক চিংড়ির কালিয়া দিয়ে

পনির ৪০০ গ্রাম
বাটার ১৫০ গ্রাম
পোস্ত ৫ চা চামচ
কাজু ৫০ গ্রাম
গোটা গরম মশলা (লবঙ্গ, দারুচিনি, ছোট এলাচ, তেজ পাতা)
দুধ সামান্য (কাজু ভেজানোর জন্য)
কাঁচালঙ্কা স্বাদ মত
আদা বাটা ২ চা চামচ
হলুদ গুঁড়ো সামান্য
লাল লঙ্কার গুঁড়ো ১ চা চামচ
জিরে গুঁড়ো ১ চা চামচ
সর্ষের তেল পরিমাণ মত
টমেটো ২ টি বড় মাপের 

আরও পড়ুন- দোকানের মতো মিষ্টি দই, সহজে বানিয়ে নিন বাড়িতেই

যে ভাবে বানাবেন-

প্রথমে পনির ছোট ছোট টুকরো করে কেটে নিন। এরপর একটি পাত্রে তেল গরম করে তাতে ছোট ছোট টুকরো করে কাটা পনিরগুলো দিয়ে দিন
হালকা ভাজা হলে পনিরটা তুলে নিন। তবে যদি পনিরটা নরম পেতে চান তাহলে গরম জলে অল্প লবন দিয়ে তাতে  টুকরো করে কাটা পনিরগুলো ২-৩ মিনিট ভিজিয়ে তুলে নিন, এতে পনির বেশ নরম থাকে।  এরপর দুধ সমেত কাজু আর তার সঙ্গে পোস্ত, কাঁচালঙ্কা ও টমেটো একসঙ্গে একটা ব্লেন্ডারে মিহি পেস্ট করে নিন। এবার পনির ভাজা তেলে গোটা গরম মশলা দিয়ে হলকা করে ভেজে নিন। এরপর এতে পেস্ট এবং সমস্ত মশলা দিয়ে ভালো করে কষিয়ে নিন। মশলা থেকে তেল বেরিয়ে এলে তাতে পনিরটা দিয়ে দিন। কিছুক্ষণ পরে মশলা থেকে তেল ছেড়ে এলে উপ থেকে বাটার দিয়ে ৫ থেকে ১০ মিনিট দমে রাখুন। তারপর ভালো করে মিশিয়ে নামিয়ে নিন। একটি সুন্দর পাত্রে নামিয়ে গরম গরম লুচি বা পরোটার সঙ্গে পরিবেশন করুন পনির বাটার মশালা।