শুক্রবার সকল ভারত জানতে পেরেছে এক এনকাউন্টারের কথা। হায়দরাবাদের পশু চিকিত্সকের গণধর্ষণ ও খুনের ঘটনায় ধৃতস চার অভিযুক্ত শুক্রবার ভোর রাতে পুলিশের এনকাউন্টারে প্রাণ হারিয়েছে। পুলিশের বক্তব্য ঘটনার পুণনির্মানের সময় অস্ত্র ছিনিয়ে পালানোর চেষ্টা করেছিল অভিযুক্তরা। তখন বাধ্য হয়ে গুলি চালায় পুলিশ। শুক্রবার সকলে এই ঘটনা সামনে আসার পরও দেশের একটা বড় অংশ মনে করছে পুলিশ ঠিক করেছে। আবার আরেকটা অংশের বক্তব্য পুলিশ নিজেদের হাতে আইন তুলে নিয়ে ভুল কাজ করেছে। মানবাধিকার লঘ্নন হয়েছে হায়দরাবাদে। যারা এই ঘটনার বিরোধীতা করছেন তাদের মধ্যে অন্যতম হায়দরাবাদের বাসিন্দা ভারতীয় ব্যাডমিন্টনের তারকা জোয়ালা গুট্টা। শুক্রবারই টুইট করে প্রশ্ন তুলেছিলেন জোয়ালা, এই এনকাউন্টার কী ধর্ষণের হাত থেকে সমাজকে মুক্তি দিতে পারবে? 

আরও পড়ুন - এক মাসেই শেষ করতে হবে ধর্ষণ মামলার শুনানি, দেশের আইন ব্যবস্থায় বদল চান গম্ভীর

শনিবার আবারও টুইট করলেন জোয়ালা গুট্টা। সেখানে তিনি বলছেন,শুক্রবার গোটা দেশে যে ভাবে এনকাউন্টারের ঘটনাতে সমর্থম করছে ও উত্সব করেছে সেটা তাঁকে অবাক করেছে। রাতে ঘুমোতে পারেননি তিনি। একই সঙ্গে যে সব মানুষ হায়দরাবাদন এনকাউন্টারের ঘটনায় জোয়ালার মতই বিরোধীতা করছেন তাদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন জোয়াল গুট্টা। একই সঙ্গে সবার কাছে তাঁর আবেদন দেশের সংবিধান ও বিচার ব্যবস্থার ওপর বিশ্বাস হারানো চলবে না। এই টুইটের পাশাপাশি দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি নেলসন ম্যান্ডেলার একটি উক্তিও পোস্ট করেছেন জোয়ালা।

 

 

 

 

আরও পড়ুন - ঘাতক উইকেটে আহত একাধিক ব্যাটসম্যান, খেলা বন্ধ মেলবোর্নে

জোয়াল গুট্টার মত সরাসরি কিছু না বললেও প্রাক্তন জাতীয় ক্রিকেটারও বর্তমানে ধারাভাষ্যকার সঞ্জয় মাঞ্জেকার মজার ছলেই হায়দরাবাদ এনকাউন্টারের নিন্দা করেছে। কিশোর কুমারের বিখ্যাত গানের লাইন নিজের টুইটে তুলে ধরেছেন সঞ্জয়। ইয়ে পাবলিক হ্যায়, ইয়ে সব জানতি হ্যায়। ভারত ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচের জন্য শুক্রবার হায়দরাবাদেই ছিলেন তিনি। শনিবার হায়দরাবাদ ছাড়ার আগে টুইট করেন সঞ্জয়। 

 

 

আরও পড়ুন - বিরাটের ব্যাটিং দেখে উচ্ছ্বসিত অমিতাভ বচ্চন, আপনিই অনুপ্রেরণা বললেন বিরাট