সকালেই দেশকে একটা সুখবর দিয়েছিলেন দুই ভারতীয় তীরন্দাজ দীপিকা কুমারী ও অঙ্কিতা ভক্ত। ২১ তম এশিয়ার আর্চারি চ্যাম্পিয়নশিপে মহিলাদের রিকার্ভ ইভেন্টের সেমিফাইনালে উঠে দেশকে অলিম্পিকের টিকিট এনে দিয়েছিলেন দীপিকা কুমারী ও অঙ্কিতা ভক্ত। ঝড়ের গতিতে সেমিফাইনালে উঠেছিলেন তারা। আর সেই ছন্দ বজায় রেখেই সেমিফাইনাল জিতে বৃহস্পতিবার বিকেলে সোনার পদকের লড়াইতে নামলেন দীপিকা ও অঙ্কিতা। সোনার পদকের লড়াইতে জুনিয়র অঙ্কিতাকে হারিয়ে সেরার তকমা আদায় করে নিলেন দীপিকা কুমারী। মহিলাদের রিকার্ভ ইভেন্টে সোনা জেতায় অনেকেই মনে করছেন দীপিকার বেজিং যাওয়া পাকা। 

আরও পড়ুন - অনিল কুম্বলের ক্যামেরায় ধরা পড়ল ‘মায়া’, ছবি ভাইরাল নেট দুনিয়ায়

২১তম এশিয়ান আর্চারি প্রতিযোগাতিয় এটি ভারতের দ্বিতীয় সোনা। এর আগে বুধবার মিস্কড কমপাউন্ড বিভাগে সোনা জিতেছিলেন অভিষেক ভার্মা ও জ্যোতি সুরেখা। এবার সোনার পদক জিতলেন দীপিকা। সঙ্গে এল অঙ্কিতার রুপোর পদকও। সব মিলিয়ে তাই খুশির হাওয়া ভারতীয় তীরদান্দাজী শিবিরে। বছরের শুরুতেই ভারতীয় আর্চারি অলিম্পিকের প্রথম টিকিট পায়। অতনু দাস, তরুণদীপ রাই ও প্রভীন যাদবের পুরুষ রিকার্ভ টিম অলিম্পিকের টিকিট পাকা করেছিল। 

আরও পড়ুন - ভারতীয় ফুটবলে নীল বিপ্লব, মুম্বাই সিটি এফসি কিনে নিল ম্যাঞ্চেস্টার সিটি

ভারতীয় তীরন্দাজরে কাছে বর্তমান সময়া একবারেই সুখের নয়। কারণ ভারতীয় তীরন্দাজী সংস্থা এখন নির্বাসিত। একটা সময় অনিশ্চিয়তার মধ্যেই পরে গিয়েছিলেন দীপিকারা। তবে বিশ্ব তীরন্দাজী সংস্থা জানিয়েছিল তাদের অধীনে নিরপেক্ষ প্রতিযোগি হিসেবে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবে ভারতীয় আর্চাররা। আর নিরপেক্ষ ভাবে অংশ নিয়েই দুটি অলিম্পিকের কোটা যেমন ভারত আদায় করে নিল, তেমনই পাওয়া গোল একাধিক পদকও। তাই  ২১ তম এশিয়ার চ্যাম্পিয়নশিপের শেষ দিন খুশির হাওয়া ভারতীয় শিবিরে। 

আরও পড়ুন - জোফরা আর্চারকে বর্ণ বৈষম্য মূলক কটুক্তি, ঘটনার পেছনে কী ইংরেজ সমর্থক