বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপ থেকে চোটের কারণে ছিটকে গেলেন ভারতীয় অ্যথলিট হিমা দাস। অতীতে জুনিয়র বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে প্রথম হয়েছিলেন হিমা। তবে এবার বিশ্ব চ্যাম্পিনশিপের ইভেন্ট থেকে চোটের কারণে ছিটকে গেলেন অসমের মেয়ে। বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে হিমার অংশ গ্রহণ করা নিয়ে আগেই সংশয় ছিল। বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপের তালিকায় এর আগেও নাম পাঠানো হয়নি এএফআই-র তরফ থেকে। তবে এবার চোটের কারণে সরাসরি ভাবে বাদ পড়লেন অসমের এই অ্যথলিট।

আরও পড়ুন, টোকিও অলিম্পিকের টিকিট পাকা ভিনেশ ফোগাটের, বিশ্ব কুস্তি প্রতিযোগিতায় জিতলেন ব্রোঞ্জ পদকও


এই বিষয় নিয়ে বুধবার রাতে জানিয়ে দেয় অ্যথলিটিক্স ফেডারেশন অব ইন্ডিয়া। মূলত হিমার চোটকে কেন্দ্রবিন্দু দেখিয়েই তাঁকে দোহায় এই প্রতিযোগিতায় না নিয়ে যাওয়ার কথা জানান এএফআইর সভাপতি আদিল সুমারিওয়াল। তিনি বলেন, হিমার চোটের কারণেই তাঁকে অ্যথলিটিক্স দলে রাখা হয়নি। দোহায় এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারছেন না হিমা। চোটের কারণেই তাঁকে দলে রাখা হয়নি।

আরও পড়ুন, চায়না ওপেনের দ্বিতীয় রাউন্ডে সিন্ধু-প্রনিথ, বিদায় সাইনার


তবে ৯ সেপ্টম্বর এএফআই-র তরফ থেকে অ্যথলিটদের একটি তালিকা পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু সেই দলে ছিলেন না হিমা দাস। ৭জন মহিলা অ্যথলিটের নাম পাঠানো হলেও, সূত্রের খবর সেই তালিকায় ছিল না হিমার নাম। ৪x৪০০ মিটার রিলে ও ৪x৪০০ মিটার মিক্সড রিলের কোনও দলেই ছিলেন না অসমের অ্যথলিট। এই তালিকায় হিমার নাম ছাড়াও, ছিল না দ্যুতি চাঁদের নামও। পরে আইএএএফর নিমন্ত্রণে ১০০মিটারে যোগ করা হয় দ্যুতির নামও।

আরও পড়ুন, কাশ্মীরে ভারতীয় সেনার সাফল্য, একদিনে খুঁজে পাওয়া গেল বাক্সেটবল খেলোয়াড়কে


শেষ বছর এশিয়ান গেমসের পর পিঠের চোটে ভুগছিলেন হিমা। আর তারপর কিছুটা বিশ্রামেই ছিলেন এই অ্যথলিট। চলতি বছরে জুলাই থেকে আগস্টের মধ্যে দেশের হয়ে মোট ৬টি স্বর্ণ পদক জিতেছিলেন এই অ্যথলিট। ২০০ মিটারে ৪টি পদক জিতেছিলেন অসমের অ্যথলিট। পাশাপাশি একটি ৩০০ ও একটি ৪০০ মিটারের ইভেন্টে সোনা জিতেছিলেন হিমা। দেশের হয়ে দিনের পর দিন শ্রেষ্ঠ ভাবে পারফর্ম করলেও চোটের কারণে এবার বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নেওয়া হচ্ছে না হিমা দাসের।