দেশ জুড়ে ক্রমশ বেড়েই চলেছে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ। যা ক্রমেই উদ্বেগের কারণ হয়ে দাড়াচ্ছে প্রশাসনের কাছে। ক্রীড়া ক্ষেত্রেও ক্রমশ মাথা ব্যাথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে এই মারণ ভাইরাস। কোভিড ১৯ মানুষের জীবনের পাশাপাশি কেড়ে নিচ্ছে মানুষের স্বপ্ন ও সাধের জিনিসও। তার জ্বলন্ত উদাহরণ ভারতীয় অ্যথলিট দ্যুতি চাঁদ। দীর্ঘ দিন ধরে খেলা বন্ধ থাকায় চরম আর্থিক সংকটে পড়েছেন অ্যাথলিটরা। অলিম্পিকের জন্য জুটছে না কোনও স্পনসরও। তাই এবার নিজের সখের বিএমডব্লু গাড়ি বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নিলেন দ্যুতি চাঁদ। সোশ্যাল মিডিয়ায় গাড়ির সঙ্গে তার ছবি দিয়ে পোস্টও করেনি তিনি। যদিও পড়ে পোস্ট সরিয়ে দেন দ্যুতি।

আরও পড়ুনঃধোনির জন্য গান গাইলেন গ্যাংস অফ ওয়াসেপুরের অভিনেতা বিনীত কুমার, যা ঝড় তুলেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়

গাড়ি ও বাইকের প্রতি বরাবরই সখ ছিল দ্যুতি চাঁদের। অনেক দিনের স্বপ্ন ছিল বিএমডব্লু গাড়ি কেনার। বছর দুয়েক আগে কষ্ট করে নিজের স্বপ্ন পূরণ করেছিলেন ভারতীয় তারকা অ্যাথলিট। ৩০ লক্ষ টাকার বিনিময়ে কিনেছিলেন স্বপ্নের বিএমডব্লু। কিন্তু আগামী বছর রয়েছে অলিম্পিক। তার জন্য জোর কদমে অনুশীলন চালিয়ে যাচ্ছেন দ্যুতি চাঁদ। কিন্তু করোনার জেরে দীর্ঘদিন ধরে স্তব্ধ খেলার জগৎ। এই পরিস্থিতিতে কোনও স্পনসর সাহস করে এগিয়ে আসছে না। এমন পরিস্থিতিতে অর্থের অভাব যেন কোনওভাবেই প্রশিক্ষণে প্রভাব না ফেলে। সেই সংকল্প করেই গাড়ি বিক্রির সিদ্ধান্ত  নিয়েছেন দ্যুতি চাঁদ।

আরও পড়ুনঃ'মুলতানে ৩০৯ রানের ইনিংস বাবা-মায়ের কর্মের সুফল পেয়েছিল সেওয়াগ', অদ্ভুত মন্তব্য সাকলিন মুস্তাকের

আরও পড়ুনঃফের 'দাদাগিরি',তিন মাস সময় পেলে এখনও দেশের হয়ে টেস্টে রান করার ক্ষমতা রাখি, বললেন সৌরভ

কেন্দ্রীয় সরকার স্বাস্থ্যবিধি মেনে অনুশীলনে ফেরার ইঙ্গিত দিলেও, ফেডারেশনের তরফে এখনও অনুমতি মেলেনি। মিলছে না কোনও সাহায্যও।তাই গাড়ি বিক্রি ছাড়া আর কোনও পথ খোলা নেই দ্যুতির সামনে। 'করোনা মহামারীর জেরে সব ধরনের প্রতিযোগিতা বাতিল হয়ে গিয়েছে। অলিম্পিকের স্পনসরশিপও নেই। গত কয়েক মাসে জমানো অর্থ শুধু খরচই হয়েছে। আয় কিছুই হয়নি। এই পরিস্থিতিতে নতুন কোনও স্পনসরও জুটবে না। তাই হাতে একটাই উপায়। গাড়িটা বিক্রি করে দেওয়া।' আগামী দিনে অলিম্পিকে দেশকে সাফল্য এনে দেওয়ার জন্য দ্যুতি চাঁদের এই সিদ্ধান্ত সত্যিই কুর্ণিশ যোগ্য।