শুক্রবার প্রথম দিনই ছবিটা পরিস্কার হয়ে গিয়েছিল। পাকিস্তান ডেভিস কাপের ম্যাচে ভারতকের সামনে দাঁড়াতে পারেব না। শুক্রবার হাওয়া দুটি সিঙ্গেলস ম্যাচে স্ট্রেট সেটে জয় তুলে নিয়েছিলেন রামকুমার রামনাথ ও সুনীল নাগাল। শনিবার ছিল ডাবসের ম্যাচে। বিশ্ব টেনিসের এক অন্যতম লেজেন্ড লিয়েন্ডার পেজ এদিন কোর্টে নেমেছিলেন  তরুণ খেলোয়াড় জীবনকে নিয়ে। জুনিয়র খেলোয়াড়কে পাশে নিয়ে লিয়েন্ডার নেতার মতই খেললেন। বলা ভাল পাকিস্তানের বিরুদ্ধে কোর্টে দাপিয়ে বেড়ালেন। 

আরও পড়ুন - ধোনিকে নিয়ে সম্পুর্ণ স্বচ্ছতা আছে, বলছেন বোর্ড সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়

৫৩ মিনিটের লড়াইতে সহজ জয় তুলে নিল ভারতীয় জুটি। শুক্রবার দুটি সিঙ্গেলসে যে দুই পাক খেলোয়াড় হারের মুখ দেখেছিলন সেই মহম্মদ শোয়েব ও আব্দুল রহমান এদিন ডাবলসের ম্যাচে পাক দলকে প্রতিনিধিত্ব করতে নেমেছিলেন। কিন্তু সিঙ্গেলসের মতই ডাবলসেও তাদের পরিণতি করুণ। ৬-১, ৬-৩তে ম্যাচ জিতে নিলেন লিয়েন্ডাররা। তিন শুন্যকে পাকিস্তানকে হারিয়ে ডেভিস কাপের পরের পর্বে ভারত। একই সঙ্গে ডেভিস কাপের ইতিহাসে ৪৩টি ডাবলস ম্যাচ জিতলেন লিয়েন্ডার। তিনিই শীর্ষে ছিলেন। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে জয় তাঁর পরিসংখ্যানে আরও উন্নিত ঘটাল। 

আরও পড়ুন - ব্র্যাডম্যানের রেকর্ড ভাঙলেন ওয়ার্নার, দ্রুততম ৭ হাজার রানের মালিক হলেন স্মিথ

ভারত-পাকিস্তান ডেভিস কাপের ম্যাচ নিয়ে কম সমস্যা হয়নি। নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে পাকিস্তানে খেলতে যাবেন না বলে জানিয়েছিলেন ভারতীয় খেলোয়াড়রা। আন্তর্জাতিক টেনিস সংস্থা সেই দাবি মেনে ইসলামাবাদ থেকে ম্যাচ সরিয়ে নেয়। এতে আবার চটে যান পাক খেলোয়াড়রা। তারাও নাম তুলে নেন দল থেকে। এদিকে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচের জন্য ভারতীয় দল ও অধিনায়ক নির্বাচন নিয়েও কম বিতর্ক হয়নি।  সব শেষে হল ডেভিস কাপের ভারত-পাকস্তান ম্যাচ। আর লিয়েন্ডাররা প্রতিবেশী দেশের বিরুদ্ধে একশো শতাংশ রেকর্ড ধরে রাখলেন। 

আরও পড়ুন - কোচ ছাঁটাই ধোনির দলে, জন গ্রগরির সঙ্গে সম্পর্কে ইতি টানল চেন্নাইন এফসি