করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের জেরে থমকে গিয়েছে সারা বিশ্ব। গরিব মানুষদের অবস্থা ক্রমেই সঙ্গীন হয়ে উঠছে প্রতিদিন অন্তর। এই অবস্থায় বেশিরভাগ মানুষই গৃহবন্দি অবস্থায় দিন কাটাচ্ছেন। কিন্তু সংক্রমণের জেরে মৃত্যু আটকাতে নিজেদের জীবনকে তুচ্ছ করে দিনরাত কাজ করে চলেছেন সারা বিশ্বের চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মীরা। করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আসল নায়ক যে তারাই তা বলাই বাহুল্য। দেশ-বিদেশের ক্রীড়াবিদরা ইতিমধ্যেই তাদের লড়াইকে সম্মান জানিয়েছেন নানাভাবে। তালিকায় নতুন সংযোজন স্পেনের ২০১৬ অলিম্পিকে সোনাজয়ী শাটলার ক্যারোলিনা মারিন।

আরও পড়ুনঃবর্তমানে বিশ্বের সব থেকে 'সেক্সিয়েস্ট অ্যাথলিট', জানুন আলিশা স্মিডের কাহিনি

চিকিৎসক-স্বাস্থ্যকর্মীদের লড়াইকে কুর্নিশ জানিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে চলেছেন ২০১৬ তে রিও অলিম্পিকে পিভি সিন্ধুকে ফাইনালে হারিয়ে সোনাজয়ী মহিলা শাটলার মারিন। স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদের ভার্জেন ডেল মের হাসপাতাল করোনা ভাইরাসের মোকাবিলায় সম্প্রতি দুর্দান্ত কাজ করেছে। আর দুঃসময়ে সেই দৃষ্টান্ত স্থাপন করা হাসপাতালের চিকিৎসকদের সম্মান জানিয়ে অলিম্পিক সোনা সহ তার কেরিয়ারে জেতা সমস্ত খেতাব তাদের হাতে তুলে দিতে চলেছেন অলিম্পিকে সোনাজয়ী শাটলার।

আরও পড়ুনঃনভেম্বর থেকে শুরু হবে আইএসএল, দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে হবে ম্যাচ

আরও পড়ুনঃদীর্ঘদিন পর ফ্রি কিক থেকে গোল দেগেছেন রোনাল্ডো,জেনে নিন সি আর সেভেনের কেরিয়ারের সেরা সাতটি ফ্রি কিক সম্পর্কে

করোনা ভাইরাসের সাথে লড়াইয়ে সামিল নায়কদের সম্মানার্থে মারিনের এই উদ্যোগ এর মধ্যেই প্রশংসা কুড়িয়েছে সমস্ত মহলে। সম্প্রতি ওই হাসপাতালের নার্স-চিকিৎসকদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্স করে কথা বলেছেন ক্যারোলিনা মারিন। সারা বিশ্বের এই দুঃসময়ে সাধারণ মানুষের জন্য হাসপাতালের কর্মীদের এই লড়াইকে কুর্নিশ জানিয়ে তার উদ্যোগের কথা হাসপাতাল কর্মীদের জানিয়েছেন ক্যারোলিনা। ভারতের একটু সংবাদ সংস্থার প্রশ্নের উত্তরে মারিন জানিয়েছেন যে তিনি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষর সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন। স্পেনের মানুষের কাছে তারাই বাস্তবের নায়ক। কাজেই এই উদ্যোগ নিতে ২ বার ভাবতে হয়নি তাকে।