পিছিয়ে গিয়েছে ২০২০ টোকিও অলিম্পিক। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে গতমাসে এই সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি। করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক শুধুমাত্র অলিম্পিকে ক্ষেত্রে নয়, প্রভাব ফেলেছে সারা বিশ্ব জুড়ে চলতে থাকা সমস্ত ক্রিড়াসূচির ওপর।  অলিম্পিক পিছিয়ে যাওয়াতে ক্রীড়াবিদদের মনের ওপরে পড়া নেতিবাচক প্রভাব নিয়ে এবার মুখ খুললেন কিংবদন্তি সাঁতারু মাইকেল ফেল্পস। 

আরও পড়ুনঃমেসির ব্যক্তিগত জীবনের কিছু মূহুর্ত, যা বরাবর ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়

ফেল্পস জানিয়েছেন, চার বছর ধরে এক একজন ক্রীড়াবিদ নিজেকে তৈরি করেন একটি নির্দিষ্ট লক্ষ্যের দিকে তাকিয়ে, তাদের প্রত্যেকের কিছু নিজস্ব চিন্তা-ভাবনা থাকে, কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে সেটা বিঘ্নিত হচ্ছে। প্রসঙ্গত, ফেল্পস নিজের অলিম্পিক কেরিয়ারে মোট ২৮টি অলিম্পিক মেডেল জিতেছেন। তিনি আরও বলেছেন যে তিনি প্রার্থনা করবেন যাতে এই অবস্থায় কোনও ক্রীড়াবিদ মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে আত্মহত্যার পথ না বেছে নেন। পরিস্থিতি একেবারেই সুখকর নয়। বিশ্বজুড়ে এরকম পরিস্থিতি আগে কোনোদিনও তৈরি হয়নি। এই অবস্থায় দাঁড়িয়ে অলিম্পিক পিছিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত একেবারেই সঠিক বলে জানিয়েছেন তিনি। 

আরও পড়ুনঃস্পেনের লকডাউনের নিয়ম অগ্রাহ্য করে দেশে ফিরলেন স্মলভ

আরও পড়ুনঃআতঙ্কের মাঝেই আশার বাণী,নির্দিষ্ট সময়েই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ করতে চায় আইসিসি

সকল ক্রীড়াবিদদের উদ্দেশ্যে নিজের তরফ থেকে  বার্তা দিয়েছেন ফেল্পস। তিনি বলেছেন এই সময় ভেঙে পড়ার নয়। ৩৪ বছর বয়সী প্রাক্তন ক্রীড়াবিদ জানিয়েছেন এই সময়টাকে বরং ক্রীড়াবিদরা ব্যবহার করতে পারেন নিজেদের দক্ষতায় সান দেওয়ার কাজে। প্রসঙ্গত পরের বছরে অলিম্পিক শুরু হবে ২০২১ সালের জুলাই মাসে।