বিশ্ব মহামারীকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে প্রদর্শনী টেনিস প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছিলেন বিশ্বের এক নম্বর টেনিস তারকা নোভাক জোকোভিচ। যার প্রকোপ থেকে রক্ষা পাননি নিজেও। বর্তমানে করোনা আক্রান্ত হয়ে অইসোলেশনে রয়েছেন জোকার। অবস্থা স্থিতিশীল থাকলেও, তাকে পর্যবেক্ষণে রেখেছেন চিকিৎসকরা। এরইমধ্যে ঘটল আরও এক চাঞ্চল্যকর ঘটনা। খুনের হুমকি পেলেন বিশ্বের এক নম্বর টেনিস তারকা। যেই খবর প্রকাশ্যে আসতেই চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে টেনিস বিশ্বে।

আরও পড়ুনঃবর্ণবৈষম্যের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সামিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল,জার্সির কলারে লেখা থাকবে 'ব্ল্যাক লিভস ম্যাটার

চ্যারিটি টুর্নামেন্ট আদ্রিয়া ট্যুর আয়োজন করার কারণে কম সমালোচনার মুখে পড়তে হয়নি জোকারকে। সামাজিক দূরত্বকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে ডুর্নামেন্টের মাঝে চলেছে দেদার পার্টিও। ইতিমধ্যেই জোকারের প্রতিযোগিতা হয়ে উঠেছে কোরানহট স্পটি। তাঁর চ্যারিটি টুর্নামেন্টে অগশগ্রহণ করে কোভিড১৯-এ আক্রান্ত হয়েছেন গ্রিগর দিমিত্রভ, বোর্না করিচ, ভিক্টর ত্রোইস্কি এবং খোদ জকোভিচ। আক্রান্ত হয়েছে জোকোভিচের কোচও। সার্বিয়ার রাজধানী বেলগ্রেড ছাড়াও আদ্রিয়া ট্যুরের ভেন্যু হিসেবে ছিল ক্রোয়েশিয়ার জাদার শহরও। যেখানে মেগা টুর্নামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। সেই জাদার শহর থেকে ৯০ মিনিট দুরত্বে ক্রোয়েশিয়ার স্প্লিট শহরের রাস্তায় মিলল জকোভিচকে খুনের হুমকি বার্তা। হুমকি বার্তায় লেখা ছিল, ‘জকোভিচ তুমি মরে যাও। স্প্লিট থেকে তোমার মৃত্যু কামনা রইল। তোমার মৃত্যু হোক জকোভিচ।’

আরও পড়ুনঃকরোনা আবহেই সুখবর, শিখর ধাওয়ানের পরিবারে এল নতুন অতিথি

আরও পড়ুনঃওয়ার্নারের কন্ঠে শুনুন 'বড় লোকের বেটি লো',যা শুনে হেসে লুটোপুটি খাবেন আপনিও

যদিও পরে প্রতিযোগিতা আয়োজন করার জন্য ক্ষমা  চেয়ে নিয়েছিলেন জোকার। তিনি বলেছিলেন,'আমি ভীষণভাবে দুঃখিত প্রত্যেকের জন্য। আশা রাখি কারও শারীরীক পরিস্থিতি জটিল পর্যায়ে পৌঁছবে না এবং খুব তাড়াতড়ি সকলে সুস্থ হয়ে উঠবে। আমরা যা করেছি সহৃদয়ে করেছি এবং আমাদের উদ্দেশ্য খুবই পরিষ্কার ছিল। আমাদের টুর্নামেন্ট মানুষকে ঐক্যবদ্ধ ও সংহতিপরায়ণ করার জন্য আয়োজিত হয়েছিল।'কিন্তু এরইমধ্যে খুনের হুমকি পেয়ে আতঙ্কিত রয়েছেন জোকার।