একে লকডাউনের কারণে স্থগিত হয়ে গিয়েছে একার পর এক গ্র্যান্ড স্ল্যাম ইভেন্ট। এক বছর পিছিয়ে গিয়েছে উইম্বেলডন। পিছিয়ে গিয়েছে অলিম্পিকও। স্থগিত ফরাসী ওপেনও।  অনিশ্চিত যুক্তরাষ্ট্র ও অস্ট্রেলিয়া ওপেনও। ফুটবল . ক্রিকেট শুরু হলেও কব থেকে টেনিস ছন্দে ফিরবে তা নিয়ে এখনও নেই কোনও ঘোষণা। তবে প্রিয় তারকাদের টেনিস কোর্টে দেখার জন্য অধির আগ্রহে অপেক্ষা করছে টেনিস বিশ্ব। তবে টেনিস বিশ্ব ও রজার ফেডেরার ভক্তদের জন্য দুঃসংবাদ। চলতি বছরে যখনই টেনিস ফিরুক না কেন, এই বছর আর মাঠে নামবেন ফেডেক্স। কারণ চোটের কারণে টেনিস কোর্ট থেকে এই বছর দূরেই থাকতে হবে তাকে।

আরও পড়ুনঃপ্রাক্তন ক্রিকেটারের অস্বাভাবিক মৃত্যু, গ্রেফতার ছেলে

ডান হাঁটুর চোট নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে ভুগছেন রেকর্ড ২০টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ী সুইস তারকা। একাধিকবার চিকিৎসা ও অপারেশনও করিয়েছেন। কিন্তু পুরোপুরি সারেনি সমস্যা। জানা গিয়েছে,ডান হাঁটুর চিকিৎসা যথাযথ না হওয়ায় দ্রুত আরেকবার অস্ত্রোপচার করাতে হয় তাঁকে। সেই কারণেই খেলার মতো পরিস্থিতিতে নেই ফেডেক্স। তাই আপাতত চলতি বছরে আর কোর্টে আনুরাগীদের সঙ্গে দেখা হবে না তাঁর। তবে ২০১৭ পর্যন্ত যেভাবে পরিকল্পনা করেছিলেন নিজের কেরিয়ারকে, ঠিক সেভাবেই সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে কোর্টে ফিরতে চান তিনি। রজার আশা করছেন নতুন বছরে আবার সমর্থকদের প্রত্যাশা পূরণ করতে পারবেন। ফেডেরারে এই খবর প্রকাশ্যে আসার পরই কিছুটা হলেও ভেঙে পড়েছেন বিশ্ব জুড়ে ফেডেরার অনুগামীরা।

আরও পড়ুনঃটেস্টে ৫০ ওভার পর দেওয়া হোক নতুন বল,লি-র সঙ্গে আলোচনায় বললেন সচিন

আরও পড়ুনঃআহত পাখিকেে বাঁচালেন ধোনি কন্যা জিভা,ভাইরাল ছবি

নিজের অবস্থার কথা জানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে একটি বিজ্ঞপ্তি ও জারি করেছেন সুইস তারকা। বিজ্ঞপ্তিতে ফেডেরার জানিয়েছেন, ‘প্রিয় অনুরাগীরা, আশা করি আপনারা নিরাপদে ও সুস্থ আছেন। কয়েক সপ্তাহ আগে আমার প্রাথমিক রিহ্যাব ধাক্কা খায়। ডান হাঁটুতে দ্রুত অর্থোপেডিক অস্ত্রোপচার করাতে হয়। এখন ঠিক যেভাবে ২০১৭ মরশুমের আগে পর্যন্ত পরিকল্পনা করেছিলাম, ঠিক সেভাবেই সর্বোচ্চ মঞ্চে খেলতে নামার আগে নিজেকে একশো শতাংশ সুস্থ করে তোলার জন্য প্রয়োজনীয় সময় দিতে চাই। আমি আমার অনুরাগীদের এবং ট্যুর ভীষণভাবে মিস করব। তবে আশা করি ২০২১ মরশুমের শুরুতেই আবার ট্যুরে সবাইকে দেখতে পাব।’ প্রিয় তারকার দ্রুত সুস্থতা কামনা করেছেন তার ভক্তরা।