শুক্রবার কেরল স্টেট জুনিয়র চ্যাম্পিয়নশিপে ঘটে গেল এক দুর্ঘটনা। হ্যামার থ্রো ইভেন্টের লোহার বল মাথেয় লেগে গুরুতর আহত হলেন এক তরুণ স্বেচ্ছাসেবক। ১৭ বছরের অভিল জনসনকে ঘটনার পরই নিয়ে যাওয়া হয় স্থানীয় মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। গুরুতর অবস্থায় অভিলকে ভর্তি করা হয়েছে আইসিউইতে। ঘটনার আকস্মিকতায় চমকে গেছেন সবাই। 

আরও পড়ুন - তৈরি ভারতীয় ফুটবলের নতুন রোড ম্যাপ, ১৪ তারিখ এএফসির সদর দপ্তরে প্রকাশ হবে নতুন দিশা

অভিল স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করছিলেন জ্যাভলিন ইভেন্টে। একজন জন জ্যাভলিন ছোঁড়ার পর তার থ্রোয়ের মাপ নিয়ে নিজের জায়গায় ফিরছিলেন। তখনই হ্যামর থ্রো ইভেন্টের প্রতিযোগি লোহার বল থ্রো করেন। অভিল কিছু বুঝে ওঠার আগেই সেই ৩কেজি ওজনের লোহার বল তাঁর মাথায় গিয়ে লাগে। আয়োজকরা অভিলকে সকর্ত করার চেষ্টা করেছিলেন, কিন্তু ততক্ষণে যা হওয়ার তা হয়ে গেছে। সঙ্গে সঙ্গে মাটিতে লুটি পড়েন ১৭ বছরের তরুণ।

আরও পড়ুন - কড়া ভাষায় পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সমালোচনা সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের

গুরুতর চোট পাওয়া অভিলকে সঙ্গে সঙ্গে নিয়ে যাওয়া হল হাসপাতালে। কিন্তু আয়োজকদের দায়িত্বজ্ঞান নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন সবাই। একই সঙ্গে যখন দুটো ইভেন্ট চলছে তখন, কেন সব দিক না দেখে হ্যামর বল থ্রো ইভেন্টের প্রতিযোগিকে বল ছোঁড়ার সবুজ সংকেত দেওয়া হয়েছিল? সেই প্রশ্নের উত্তর যদিও পাওয়া যায়নি। আয়োজকরা নিজেদের ব্যর্থতা ঢাকতে ব্যস্ত। চলছে একে অপরের বিরুদ্ধে দোষ দেওয়ার পালা। তবে অভিলের চিকিত্সায় যে কোনও খামতি থাকবে না সেই বিষয়ে আশ্বাস দেওয়া হয়েছে আয়োজকদের তরফে। 

আরও পড়ুন - আবার কোচের পদে ফিরতে পারেন অনিল কুম্বলে, জল্পনা তুঙ্গে ক্রিকেট মহলে