ভোটের আগে অনুব্রতের গড়ে একসঙ্গে বড়সড় চমক বিজেপির। এমনিতেই ভার্চুয়াল হোক কিংবা সশরীরের বিজেপির শীর্ষ নের্তৃত্বের উপস্থিতিতে রীতিমতো চাপে তৃণমূল শিবির। তার উপর বারবার বাংলা জয়ের পার্থনায় পুজো দিচ্ছেন অনুব্রত। এহেন পরিস্থিতিতে পিছিয়ে নেই কেন্দ্র। ২ মাস আগে শুধু পঞ্চ পান্ডব পাঠিয়েই থেমে থাকেনি, ভোটের আগে এবার অনুব্রত গড়ে সশরীরে তোপ দাগতে আসছেন জেপি নাড্ডা, স্মৃতি ইরানি,রাজনাথ সিং, যোগী আদিত্য়নাথ সহ বিজেপির শীর্ষ নের্তৃত্ব।

আরও পড়ুন, মমতার সঙ্গে দীর্ঘ ২২ মিনিটের সাক্ষাত, পায়ে হাত দিয়ে প্রণাম, তৃণমূলে ফিরছেন কি BJP-র ২ বিধায়ক 

 

 

মঙ্গলবার অনুব্রতর গড়ে আসছেন জেপি নাড্ডা। বেলা ১২ নাগাদ তারাপীঠ হেলিপ্যাডে পৌছবে তাঁর বিমান। সাড়ে বারোটায় হেলিকপ্টারে তারপীঠ মন্দিরে পৌছনার কথা নাড্ডার। সেখানে পুজো দিয়ে ছিলার মাঠে যাওয়ার কথা বিজেপির কেন্দ্রীয় সভাপতির। জনসবা বক্তব্য রেখেই পরিবর্তন যাত্রার সূচনা করবেন নাড্ডা। এরপর পরিবর্তন যাত্রার সূচনা করতে ঝাড়গ্রাম চলে যাবেন তিনি। এরপর যাবেন শিলদা। ভৈরব মন্দিরে পুজো দেওয়ার পর যোগ দেবেন জনসভায়। তারপর আসবেন খড়গপুরে। সেখানেই রাত কাটানোর কথা বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতির। বুধবার কালিকুন্ডায় বায়ুসেনা ছাউনি থেকে ফিরে যাবে দিল্লি।

আরও পড়ুন, 'কৃষকদের প্রকল্প নিয়েও রাজনীতি বাংলায়', কৃষি আইনের পক্ষে সওয়াল মোদীর  

 

 

প্রসঙ্গত, বিজেপি সূত্রে খবর, ৯ থেকে ১৩ ফেব্রুয়ারি গোটা জেলায় ৩২৮ কিমি পরিবর্তন যাত্রা করা হবে। সেখানেই নের্তৃত্ব দেবেন বিজেপির শীর্ষ নের্তৃত্ব। নানুরে সভা করবেন যোগী আদিত্যনাথ। ভোটের আগে অনুব্রত গড়ে আসবেন স্মৃতি ইরানি এবং রাজনাথ সিং। জানা গিয়েছে, বর্ধমানে জনসভা করতে পারেন বিজেপির এই কেন্দ্রীয় নের্তৃত্ব। তবে সঙ্গে থাকবেন বরাবরের মতোই রাজ্য বিজেপির শীর্ষ নের্তৃত্ব হিসেবে দিলীপ ঘোষ সহ শুভেন্দুরাও।