কাঁথির জনসভা থেকে অধিকারী পরিবারকে চাঁচাছোলা ভাষায় কটাক্ষ করেছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্য়ায়। কার্যত তুই-তোকারি করেছিলেন অভিষেক। সেই বক্তব্যকে হাতিয়ার করে অভিষেককে তীব্র ভাষায় কটাক্ষ করলেন বিজেপির সর্ব ভারতীয় সভাপতি। অভিষেকের কুকথার জবাবে এটা বাংলার সংস্কৃতি নয় বলে দাবি করেন নাড্ডা। তৃণমূল বাংলার সংস্কৃতি নষ্ট করছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

আরও পড়ুন-'কখনও শুনেছেন প্রধানমন্ত্রীরা মিথ্যে কথা বলে' সরকারি কর্মীদের বেতন প্রসঙ্গে মোদীকে তোপ মমতার

মঙ্গলবার বীরভূমে বিজেপির পরিবর্তন যাত্রার সূচনা করেন জেপি নাড্ডা। এর আগে নবদ্বীপে রথযাত্রার সুচনা করেছিলেন তিনি। এরপর, চিলার ময়দানে জনসভা করেন নাড্ডা। সেখান থেকে শাসকদল তৃণমূল ও অভিষেককে নিশানা করেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি। তিনি বলেন, ''ভাইপো সভায় দাঁড়িয়ে এমন ভাষা প্রয়োগ করেছেন, তা তো মুখে আনা যায় না। সকলের নামের সঙ্গে কোনও না কোনও বিশেষণ জুড়ে দিচ্ছেন। এটা কি বাংলার সংস্কৃতি? সস্তায় ক্ষমতা পেয়েছেন তো তাই মস্তি করছেন''।

আরও পড়ুন-পুলিশের পর প্রশাসনিক পর্যায়েও বড়সড় রদবদল, একাধিক অফিসারকে বদল করল নবান্ন

বীরভূমের সভা থেকে নাড্ডার আরও অভিযোগ, ''সকলকে বহিরাগত বলছে তৃণমূল। ভাইয়ে ভাইয়ে লড়াই বাঁধানো হচ্ছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের আমলে সংকটে পড়েছে বাংলার সংস্কৃতি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে বাংলায় বদল হচ্ছে। তাই তিনি বারবার এই রাজ্যে আসছেন। পাশাপাশি, তৃণমূলের স্লোগানকে কটাক্ষ করে বলেন, মায়ের কোনও চিহ্ন নেই এউ দলে। মাটির প্রতি মমতা নেই। মানুষের প্রতি দায়বদ্ধতা নেই এই সরকারের''।