দুদিন আগেই এসেছিলেন। কোচবিহারে রথযাত্রার সূচনা করেছিলেন। তারপর, ঠাকুরনগরের সভা থেকে সিএএ দ্রুত কার্যকর করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। আগামী বৃহস্পতিবার ফের বাংলা সফরে আসছেন অমিত শাহ। তাৎপর্যপূর্ণভাবে ওই দিনই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীরও রাজ্য সফরে। ভোটের আগে বিজেপি দুই হেভিওয়েট সারথী বাংলা সফরে উচ্ছস্বিত গেরুয়া শিবির। আবারও বাংলা সফরে এসে কি কর্মসূচি রয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর?

আরও পড়ুন-বাড়ির সামনে BSF, নজরদারীর অভিযোগ তুলে সরব তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্রর চিঠি

গত ৭ ফেব্রুয়ারি রাজ্য সফরে এসে হলদিয়ায় সরকারি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। তার আগে রাজনৈতিক সভাও করেছিলেন তিনি। সেখান থেকে শাসকদল তৃণমূলকে নিশানা করে তীব্র কটাক্ষ করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী। বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়কে রামকার্ড দেখানোর কথা বলেছিলেন। তবে, এবার কি কর্মসূচি রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর? সূত্রের খবর, আগামী বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী রাজ্যে এলেও কোনও রাজনৈতিক কর্মসূচিতে যোগ দেবেন কি না তা এখনও নিশ্চিত নয়। সূত্রের খবর, ওই দিন প্রধানমন্ত্রী নোয়াপাড়া-দক্ষিণেশ্বর মেট্রো পথের উদ্বোধন করবেন। 

আরও পড়ুন-'টিকাকরণ শেষ হতে ১০ বছর, অর্থাৎ সিএএ কার্যকর হবে না', অমিতের প্রতিশ্রুতিকে কটাক্ষ অভিষেকের

অন্যদিকে, একইদিনে রাজনৈতিক কর্মসূচিতে যোগ দেবেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। আবারও বিজেপির রথযাত্রা সূচনা করবেন তিনি। ইতিমধ্যেই বিজেপির পরিবর্তন যাত্রার চারটি সূচনা হয়ে গিয়েছে। নবদ্বীপ, তারাপীঠ, ঝাড়গ্রাম ও কোচবিহারে। এবার দক্ষিণ ২৪ পরগনার সাগর থেকে রথযাত্রার সূচনা করবে বিজেপি। সেখানে থাকতে পারেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তবে অনুষ্ঠানের সূচনা হবে কাকদ্বীপে। একইসঙ্গে রাজনৈতিক কর্মসূচিতে যোগ দিতে পারেন তিনি।