ফের মর্মান্তিক ঘটনার সাক্ষী থাকল মুর্শিদাবাদ। শুধু মাত্র টাকা চুরি সন্দেহে নিজের মাকে পিটিয়ে খুন করল ছেলে-বউমা। তাঁদের বাধা দেওয়ায় পরিবারের অন্যান্যদের এলোপাথাড়ি কোপ মারে। ধারাল অস্ত্র দিয়ে মাকে খুনের অভিযোগে ছেলে-বউমার খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ।

আরও পড়ুন-করোনা-সংক্রমণ রুখতে কঠোর নজরদারী চালাতে হবে, বাংলার সঙ্গে আরও তিন রাজ্যকে চিঠি কেন্দ্রের

ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদের রঘুনাথগঞ্জে। জানাগেছে,পাতানি বিবি ও তাঁর স্বামী নুরুল শেখের তিন ছেলে। তারা সকলেই একই সঙ্গে বসবাস করেন। সম্প্রতি  দিন কয়েক আগে ওই বৃদ্ধ দম্পতির মেজো ছেলে সেরজু ও পুত্রবধূ শুকতারাং অভিযোগ করে, তাঁর শ্বশুর-শাশুড়ি ও দেওররা তাঁদের ঘর থেকে টাকা চুরি করেছে। এই নিয়ে চরম বিবাদ শুরু হয় উভয় পক্ষের মধ্যে। এমনকি ঘটনা থানা পর্যন্ত গড়ায়। যদিও, সাময়িকভাবে সমস্যা মিটে গিয়েছিল। এই পরিস্থিতিতে শাশুড়ি পাতিনা বিবির উপর ধরলো ধারালো অস্ত্র নিয়ে চড়াও হয় তার মেজ ছেলে সেরজু ও স্ত্রী শুকতারা। বাকি দুই ছেলে নবাব ও রাহুল শেখ প্রতিবাদ করলেই তাঁদের উপর চড়াও হয় সেরজু ও  শুকতারা। শ্বশুর-শাশুড়ি, দেওর-জাকে মারধর করে বলে অভিযোগ। ধারালো অস্ত্র দিয়ে পাতানি বিবিকে কোপানো হয় বলে অভিযোগ।      

আরও পড়ুন-দুবাইয়ের ব্যবসায়ীকে অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবি, রোমহর্ষক-কাণ্ড ঘটল শহরের বুকে

দুই অভিযুক্তের হামলায় জখম হন একই পরিবারের পাঁচজন।গুরুতর জখম অবস্থায় মা সহ অন্য়ান্যদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বছর আটষট্টির পাতিনা বিবিকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। এরপরই, এলাকা থেকে চম্পট দেয় খুনের অভিযুক্ত ছেলে ও বউমা।থানার আইসি পার্থ ঘোষ বলেন, ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।