গত ২৩ জানুয়ারি নেতাজি সুভাষ বসুর জন্মদিনের দিন বক্তৃতা দিতে গিয়ে আচমকাই দেশে ৪টি রাজধানী স্থাপন করার সুপারিশ করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বলেছিলেন, সংসদের ৪ অধিবেশন, ৪ রাজধানীতে ঘুরিয়ে ফিরিয়ে করা যেতে পারে। অনেকেই সেই প্রস্তাবে চমকে গিয়েছিলেন। অনেক আলোচনা হয়েছিল, মমতার এই প্রস্তাবের কী অর্থ, কেন এই প্রস্তাব দিলেন - সেইসব নিয়ে। বৃহস্পতিবার অবশ্য সেই বক্তব্যের সম্পূর্ণ অন্য অভিসন্ধির সন্ধান দিলেন দলবদলু বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী।

বুধবারই বীরভূমের নানুরে, শেখ আলম নামে তৃণমূল কংগ্রেসের এক প্রাক্তন পঞ্চায়েত সদস্য, বলেন, '৩০ শতাংশ সংখ্যালঘু যদি একজোট হয়, তবে দেশে চারটি পাকিস্তান তৈরি হয়ে যাবে। সেই ক্ষেত্রে ভারতবর্ষের ৭০ শতাংশ কোথায় যাবেন?' শুধু পাকিস্তান তৈরির হুমকিই নয়, ২১ বছর আগের নানুর গনহত্যার স্মৃতিও উসকে বিজেপিকে প্রচ্ছন্ন হুমকি দেওয়ার অভিযোগ ওঠে শেখ আলমের বিরুদ্ধে।

বৃহস্পতিবার, মহিষাদল বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী বিশ্বনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমর্থনে এক জনসভা করেন গত ডিসেম্বরে তৃণমূল কংগ্রেস ত্যাগী বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী। নানুরে তৃণমূল নেতার বক্তব্যের প্রেক্ষিতে তিনি বলেন, 'এখন এরাই তৃণমূলের সম্পদ। তৃণমূল নেত্রী চারটি ক্যাপিটাল চাইছেন, এরা তো বলবেই (চারটি পাকিস্তানের কথা), কারণ একই ঝাড়ে আলাদা বাঁশ জন্মায় না।' তাহলে কিি তিননি বলতে চাইলেন, ৪টি পাকিস্তান গঠনের জন্যই ৪টি রাজধানী চেয়েছিলেন মমতা?

আরও পড়ুন - 'ভাইপো'র জন্যই কি ডুবছে তৃণমূল, নাকি আসন্ন নির্বাচনে তিনিই 'দিদি'র অক্সিজেন

আরও পড়ুন - বঙ্গ ভোটে পদ্ম হাতে ৯ মুসলমান, বিজেপি কি সত্যিই সংখ্যালঘু-বিরোধী - কী বলছেন প্রার্থীরা

আরও পড়ুন - মমতা, আব্বাস না বিজেপি - কোথায় যাবে মুসলিম ভোট, বাংলার নির্বাচনে এবার সবথেকে বড় ধাঁধা

এদিন, শেখ আলমের সেই ভয়ঙ্কর বক্তৃতার ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই বিজেপির আইটি সেলের প্রধান তথা পশ্চিমবঙ্গের সহ-পর্যবেক্ষক অমিত মালব্য, আরেক সহ-পর্যবেক্ষক কৈলাশ বিজয়বর্গিয়-সহ বহু নেতা-নেত্রীই কঠোর সমালোচনা করেছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুসলিম তুষ্টিকরণের জন্যই এই স্থানীয় নেতারা এই পাকিস্তান গঠনের স্বপ্ন দেখছেন, এমনটাই তাঁদের অভিযোগ।