স্বামী পরিত্যক্তা মহিলাকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস। কোয়ার্টারে আটকে রেখে দিনের পর দিন শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের অভিযোগ। পরে ওই মহিলা বিয়ে করতে চাইলে তাঁকে ভাড়াটে খুনী দিয়ে হত্যার ছক। চাঞ্চল্যকর এই অভিযোগ উঠেছে এক স্বাস্থ্য় আধিকারিকের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদের খড়গ্রামে।

আরও পড়ুন-ফিল্মি কায়দায় লরি থেকে ধান চুরির চেষ্টা, হাতেনাতে পাকড়াও দুই কীর্তিমান

অভিযুক্ত একজন স্বাস্থ্য় আধিকারিক এবং প্রাক্তন বিএমওএইচ। জানাগেছে, স্বাস্থ্য আধিকারিক নিত্যানন্দ গাইনের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল আড়াই বছর আগে। সম্পর্ক গভীর হওয়ায় কয়েক মাস আগে ওই মহিলাকে নিয়ে এসে তাঁর কোয়ার্টারে রাখেন ওই চিকিৎসক। সেখানে মহিলাকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে দিনের পর সহবাস করে বলে অভিযোগ। এরপর, ওই মহিলা স্বাস্থ্য আধিকারিককে বিয়ের জন্য চাপ দিলে বেঁকে বসেন তিনি। শুধু তাই নয়, চিকিৎসকেক সম্পর্কে ভাগ্নে আশুতোষ মজুমদার নামে আরও একজন চিকিৎসক মহিলার সঙ্গে সহবাস করে বলে অভিযোগ। 

আরও পড়ুন-অন্ধকারে কাঁটাতার পেরিয়ে অনুপ্রবেশের চেষ্টা, সীমান্তে গ্রেফতার শিশু সহ ২১ জন মহিলা

দিনের পর পর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের পর ওই স্বাস্থ্য আধিকারিকের পরিবারকে জানায় নির্যাতিতা। পরিস্থিতি বেগতিক বুঝে ওই মহিলাকে ভাড়াটে খুনী লাগিয়ে হত্যার ছক করে বলে অভিযোগ। পুলিশের কাছে সবকিছু বিষয় জানিয়েছেন ওই মহিলা। যে ভাড়াটে খুনীদের তাঁর পিছনে লাগানো হয়েছিল। তাঁদেরও শনাক্ত করেছেন নির্যাতিতা। তাঁর প্রতি নির্যাতনের প্রতিবাদ জানিয়ে ওই চিকিৎসকের কড়া শাস্তির দাবি জানিয়েছেন নির্যাতিতা। ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসতেই মুর্শিদাবাদ স্বাস্থ্য প্রসাসনে শোরগোল পড়ে যায়। অভিযোগকারীণীর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে বলে সূত্রের খবর।