ভারতের করোনা পরিস্থিতির উন্নতি ঘটলেও এখনও করোনার দাপট অব্যাহত বেশ কয়েকটি রাজ্যে বলে জানিয়েছে কেন্দ্র। ছত্তিসগঢ়, দিল্লি, গুজরাত, হরিয়ানা, মহারাষ্ট্র, রাজস্থান, এবং কেরলের সঙ্গে সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গের করোনা পরিস্থিতিও অত্যন্ত খারাপ বলে জানানো হয়েছে। মঙ্গলবার, এই আট রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে করোনা পরিস্থিতি পর্যালোচনা করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। কিন্তু তার আগেই কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সুর চড়ালেন মমতা।

বর্তমানে বাঁকুড়া সফরে আছেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিন সেখান থেকেই তাঁর প্রধানমন্ত্রীর ডাকা ভার্চুয়াল বৈঠকে যোগ দেওয়ার কথা। সেখানে বিভিন্ন তথ্য-পরিসংখ্যান তুলে ধরে কেন্দ্রের দাবি নস্যাত করতে পারেন মমতা, এমনটাই নবান্ন সূত্রে জানা গিয়েছে। তবে এই বৈঠকের আগেই খাতড়ার এক সরকারি অনুষ্ঠানে তিনি কেন্দ্রের বিরুদ্ধে করোনা নিয়ে 'নাটক' করার অভিযোগ করলেন।

আরও পড়ুন - ৭ দিন পর ফের ৪০ হাজারের নিচে দৈনিক সংক্রমণ, করোনা পরিস্থিতি নিয়ে আজ ৮ মুখ্যমন্ত্রীর মুখোমুখি মোদী

আরও পড়ুন - প্রয়াত প্রাক্তন বিচারপতি অমিতাভ লালা, শিরোনামে এসেছিলেন 'বাংলা ছেড়ে পালা' স্লোগানে

আরও পড়ুন - ডুবে গেল বালি-পাথর বোঝাই দশটি লরি, নিখোঁজ ২২ - মানিকচকে ভয়াবহ দুর্ঘটনার মুখে ট্রলার

কেন্দ্রকে বিঁধে তিনি বলেন, 'কোভিডের বিনা পয়সার চিকিৎসাও করতে দেবে না! নাটক? শুধু মিথ্যা ভাষণ দেয়, অফিসারদের চমকায়। বাংলার বদনাম করে। আমরা যদি একটা কোভিড কেসে দেড় লক্ষ-দু’লক্ষ টাকা খরচ করতে পারি, ইঞ্জেকশন আমরাও করতে পারি। নির্দেশিকা দাও, আর বলো কার কাছ থেকে নেবে। আমাদের রাজ্য সরকার তৈরি আছে। এত মানুষকে আমরা সেফ হাউসে রেখেছি, এত পরিযায়ী শ্রমিককে আমরা প্রায় ৩০০ ট্রেনের ভাড়া দিয়ে নিয়ে এসেছি, কেন্দ্রীয় সরকার একটা ভাড়া পর্যন্ত দেয়নি। বলছে, এখন ইঞ্জেকশন দেব। আর তা আসতে ৬ মাস-৮ মাস লেগে যাবে।'