Asianet News BanglaAsianet News Bangla

১৫ নভেম্বর থেকে রাজ্যে খুলছে স্কুল-কলেজ, মুখ্যসচিবকে নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর

আগামী ১৫ নভেম্বর থেকে রাজ্যে খুলছে স্কুল। উত্তরকন্যায় প্রশাসনিক বৈঠক থেকে মুখ্যসচিবকে এই নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

CM mamata banerjee ordered chief secretary to reopen schools from november 15 bmm
Author
Kolkata, First Published Oct 25, 2021, 2:24 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

আগেই তিনি জানিয়েছিলেন যে ভাইফোঁটার পরই রাজ্যে করোনার পরিস্থিতি (Corona Situation) ঠিক থাকলে স্কুল খোলা (School Reopen) হবে। অবশেষে সেই মতোই রাজ্যের স্কুল ও কলেজ খোলার কথা ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যা (Mamata Banerjee)। কবে থেকে স্কুল খোলা হবে সেকথাও ঘোষণা করেছেন তিনি। সোমবার শিলিগুড়ির (Siliguri) উত্তরকন্যায় আয়োজিত প্রশাসনিক বৈঠক থেকে সরকারি-বেসরকারি স্কুল ও কলেজ খোলার কথা ঘোষণা করেছেন। জানিয়েছেন ১৫ নভেম্বর থেকে রাজ্যে স্কুল ও কলেজ খোলা হবে। আর তার আগে স্কুলগুলিকে পরিষ্কার করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করার জন্য মুখ্যসচিবকে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

পাঁচদিনের সফরে এই মুহূর্তে উত্তরবঙ্গে রয়েছেন মমতা। আজ তাঁর সফরের দ্বিতীয় দিন। উত্তরকন্যায় একটি প্রশাসনিক বৈঠক করেন মমতা। সেখান থেকেই স্কুল খোলা নিয়ে মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদীকে (Hari Krishna Dwivedi) নির্দেশ দেন তিনি। বলেন, "৪ তারিখ কালীপুজো (Kalipuja)। ৬ তারিখ ফাইফোঁটা। ১০ আর ১১ তারিখ ছট পুজো। ১৩ তারিখে জগদ্ধাত্রী পুজো রয়েছে। ফলে তোমাকে যা করতে হবে ১৫ তারিখ থেকে করতে হবে। স্কুল কলেজ খোলার ব্যাপারেও ১৫ তারিখ থেকে করে দাও। তার আগে স্কুলগুলি পরিষ্কার করতে হবে। সেগুলিও মাথায় রাখতে হবে।" তার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মুখ্যসচিবকে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। আগামী দু'সপ্তাহের মধ্যে স্কুল ও কলেজগুলির স্যানিটাইজ করার কাজ শেষ করতে বলেও নির্দেশ দিয়েছেন মমতা। তিনি বলেন, "স্কুল-কলেজ খোলার আগে প্রস্তুতির সময় দিতে হবে। দীর্ঘ দিন স্কুল বন্ধ ছিল। তাই কিছুটা সময় দিতে হবে যাতে স্কুল কর্তৃপক্ষ সেখানে পরিকাঠামোগত কাজ সেরে ফেলতে পারেন। তার পরেই স্কুল শুরু হবে।"

আরও পড়ুন- ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়, চিকিৎসা চলছে দিল্লিতে

আরও পড়ুন- রাজ্যে হাজার ছুঁতে চলেছে করোনার দৈনিক সংক্রমণ, পুজোর পর কলকাতা নিয়ে বাড়ছে উদ্বেগ

উল্লেখ্য, ২০২০ সালে দেশে আছড়ে পড়েছিল করোনার প্রথম ঢেউ। সেই বছর ১৬ মার্চ থেকে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয় সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। মুখ্যমন্ত্রী প্রাথমিকভাবে ৩১ মার্চ পর্যন্ত স্কুল বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছিলেন। কিন্তু, তারপরও করোনার সংক্রমণ নতুন করে বৃদ্ধি পাওয়ায় আর স্কুল-কলেজ খোলা হয়নি। এমনকী, চলতি বছরের বোর্ডের পরীক্ষাগুলিও বন্ধ রাখা হয়েছিল। ক্লাস চলছে অনলাইনে। তবে অনলাইনে ক্লাস হলেও বেশ কিছু সমস্যার মুখোমুখি হচ্ছে পড়ুয়ারা। আর সেই কারণেই স্কুল খোলার দাবি জানানো হচ্ছিল। তবে এখন রাজ্যে করোনার সংক্রমণ আগের থেকে অনেকটাই কম। তবে এখনও দৈনিক সংক্রমণ হাজারের কাছাকাছি রয়েছে। আর তার মধ্যেই প্রায় ২০ মাস পর স্কুল ও কলেজ খোলার নির্দেশ দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। তবে দীর্ঘদিন ধরে স্কুল বন্ধ থাকার কারণে একাধিক পরিকাঠামোগত সমস্যা তৈরি হয়েছে স্কুল ও কলেজগুলিতে। সেগুলি আগামী কয়েকদিনের মধ্যে যাতে সামলে নেওয়া যায়, তার জন্যও বেশ কিছুটা সময় নির্দিষ্ট করে রাখার কথা বলেছেন তিনি।

আরও পড়ুন- হৃদরোগে আক্রান্ত সুব্রত মুখোপাধ্যায়, ভর্তি এসএসকেএমে

এদিকে করোনার সংক্রমণ যেহেতু পুরোপুরি ঠিক হয়নি তাই এই পরিস্থিতিতে নিয়মিত ক্লাস করানো হবে কিনা বা প্রতিটি ক্লাসে কতজন করে পড়ুয়া থাকবে, তা নিয়ে এখনও পর্যন্ত নির্দিষ্ট করে কিছু জানাননি মুখ্যমন্ত্রী। শুধু প্রয়োজনীয় করোনা বিধি মেনে স্কুল ও কলেজ খোলার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios