Asianet News BanglaAsianet News Bangla

শুধু উৎসবের মরসুমেই ভাইবোনেদের সঙ্গে দেখা হয়: পরিবারের সম্পত্তির প্রসঙ্গ উঠতেই সুর চড়ালেন মমতা

‘‘আমরা ভাই-বোনেরা সবাই আলাদা আলাদা থাকি”,পরিবারের সম্পত্তির প্রসঙ্গ উঠতেই ছাত্র পরিষদের মঞ্চ থেকে বিরোধীদের নিশানা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

CM Mamata Banerjee talks about family members after pil filed in Calcutta High Court by BJP ANBSS
Author
First Published Aug 29, 2022, 9:26 PM IST

২০১১ সালে রাজ্যে শাসকের আসনে পালাবদলের পর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরিবারের সদস্যদের সম্পত্তির পরিমাণ উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পেয়েছে, এই অভিযোগ তুলে সোমবার কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের করেছেন বিজেপি আইনজীবী তরুণজ্যোতি তিওয়ারি। এই দিনই ছাত্র সংগঠনের সভামঞ্চ থেকে নিজের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে তাঁর যোগাযোগের কথা প্রকাশ্যে আনলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

কলকাতার ধর্মতলায় গান্ধী মূর্তির পাদদেশে আয়োজিত তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবসের কর্মসূচিতে প্রধান বক্তা হিসেবে হাজির ছিলেন দলের সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানেই তিনি বলেন, ‘‘এই শুনলাম, বিজেপি আমার নামে মামলা করেছে। আমি তো গত ১২ বছর ধরে এমপি হিসেবে যে পেনশন পাই, তা-ও নিই না। সাংসদ হওয়ার পরও কোনও দিন বিজনেস ক্লাসে যাত্রা করিনি। মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে আমার যে প্রাপ্য প্রায় সাড়ে তিন লক্ষ টাকা, তা-ও নিই না। আমি যেখানে থাকি, সেটাও ঠিকায় ভাড়া। আমার নিজের বলতে কিছুই নেই।’’

রাজ্যের প্রধান বিরোধী দলের পক্ষ থেকে তাঁর পরিবারের সম্পত্তি হাইকোর্টের নজরে আনা হয়েছে শুনে তাঁর বক্তব্য, ''আমার সম্পত্তি নিয়ে মামলা এখানে কেন হবে! আমি তো চাই আন্তর্জাতিক কোর্টে হোক। এখানে তো বিজেপি যা শিখিয়ে দেবে, তাই বলবে। আমার তো সব নথি দেওয়াই আছে। মিলিয়ে দেখুন। বাইরে গেলে চা-ও আমি নিজের পয়সায় খাই। সরকারের তেলে গাড়ি চড়াও খুব কম হয় যদি একান্তই বিপদে না পড়ি।''

নিজের পরিবার প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‘আমাদের পরিবারে বাবা ছিলেন। মা আর আমরা ছয় ভাই, দুই বোন। মা যত দিন বেঁচে ছিলেন, আমার কাছেই থাকতেন। মা চলে যাওয়ার পর একাই থাকি।’’ তিনি আরও বলেন, ‘‘আমরা ভাই-বোনেরা সবাই আলাদা আলাদা থাকি। যে যার পরিবার নিয়ে। কখনও-সখনও দেখা হয়। উৎসবের মরসুমের সময় আমাদের যোগাযোগ হয়। রাখিবন্ধনের সময়। কালীপুজোর সময়।’’

মমতার বক্তব্য প্রসঙ্গে বিজেপি নেতা শমীক ভট্টাচার্য বলেন, ‘‘সব কিছুতেই যদি স্বচ্ছতা থাকে, তা হলে, সাফাই দেওয়া হচ্ছে কেন?’’ সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী বলেছেন, ‘‘মুখ্যমন্ত্রী তো সম্পর্ক নেই বলে এক বার তৃণমূল ভবনে উঠে গিয়েছিলেন। কিন্তু আবার তো ফিরে গিয়েছিলেন কালীঘাটের বাড়িতে। আর পরিবার নিয়ে এত দিন পর উনি সাফাই দিচ্ছেন কেন? কোনও কিছু কি ধরা পড়ার ভয় করছেন মুখ্যমন্ত্রী?’’

আরও পড়ুন-
ভারতের পাক বধের ক্ষণে জাতীয় পতাকা হাতে নিতে অস্বীকার জয় শাহ-র! ভাইরাল ভিডিও-তে চরম বিতর্ক
এবার নজরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরিবারের সম্পত্তি, হাইকোর্টে মামলা বিজেপি আইনজীবীর
‘সন্ধ্যা রায়, মুনমুন সেন, মিমি, নুসরত, সায়ন্তিকা, সায়নী, জুনরা লুটেপুটে খাচ্ছে’, শালবনির শ্রীকান্তর মন্তব্যে

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios