কলেজ ছাত্রীর নগ্ন ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল করার পাশাপাশি পর্নোগ্রাফি করার অভিযোগ উঠল দুই যুবকের বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য মালদার হরিশ্চন্দ্রপুরে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ। তবে অভিযুক্ত দুই যুবকই পলাতক।অন্যদিকে, মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ছাত্রীটি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দ্বারস্থ হওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে। তদন্তে নেমেছে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ।

আরও পড়ুন, কাটোয়ায় বাড়ির কাছেই খুন তৃণমূল ঘনিষ্ঠ প্রোমোটার, অভিযুক্ত বিজেপি কর্মী

সূত্রের খবর, হরিশ্চন্দ্রপুরের বাসিন্দা কলা বিভাগের ওই কলেজ ছাত্রীর অভিযোগ, হরিশ্চন্দ্রপুর বাজার এলাকার এক যুবক তাঁর সঙ্গে প্রথমে বন্ধুত্ব করে।সেই বন্ধুত্বের সুযোগ নিয়ে তাঁর মোবাইল ছিনিয়ে নেয়।  এরপর  একান্ত গোপনীয় ছবি নিয়ে  দিনের পর দিন ওই  ছাত্রীকে ব্ল্যাকমেল করতে থাকে অভিযুক্ত যুবক।  তারই সঙ্গে ওই ছাত্রীর উপর চলতে থাকে যৌন নিগ্রহ। তারপর সম্পর্ক স্থাপনে  ওই ছাত্রী অস্বীকার করায় অভিযুক্ত   ওই যুবক হরিশ্চন্দ্রপুর বাজার এলাকার আরও এক যুবকের সঙ্গে মিলিত হয়ে ছাত্রীটির বিভিন্ন নগ্ন ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল করে দেয়। 

আরও পড়ুন, বাড়িতে ঢুকে নাবালিকা প্রেমিকাকে খুন করে আত্মঘাতী প্রেমিক, দুর্গাপুরে চাঞ্চল্য
 
পুলিশ সুপার অলোক রাজোরিয়া জানিয়েছেন, হরিশ্চন্দ্রপুর থানায় ওই ছাত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। দ্রুতই অভিযুক্তকে গ্রেফতার হবে। তিনি আরও জানান,কলেজ ছাত্রীটির সঙ্গে একজনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। এরপরে ব্রেকআপ হয়ে যায়। পরে অন্য একজনের সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি হলে বিবাদ শুরু হয়। পরে অভিযুক্ত যুবক ছবি গুলি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছেড়ে দেয়। তবে ওই ফেরার ওই যুবককে পুলিশ গ্রেফতার করলেই, উঠে আসবে আসল রহস্য়।