আশিষ মণ্ডল, বীরভূম: ১৪ দিন পেরিয়ে গিয়েছে, বাড়ি ফেরার অনুমতি না মেলায় এবার কোয়ারেন্টাইনে খাবার বয়কট করলেন পরিযায়ী শ্রমিকরা। দু'দিন ধরে চলছে। ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের রামপুরহাটে।

আরও পড়ুন: মাতৃস্নেহের কাছ হার মানল করোনা, কোভিড হাসপাতাল থেকে উধাও মহিলা

কেউ ফিরেছেন ১৭ দিন আগে, তো কারও ফেরার পর কেটে গিয়েছে ২০ দিন। দিল্লি ও মহারাষ্ট্র থেকে স্পেশাল ট্রেনে চেপে রামপুরহাট এসেছেন ২০ জন পরিযায়ী শ্রমিক। সেই দলে রয়েছেন মহিলা ও শিশুরাও। সকলেই বাড়ি রামপুরহাট ১ নম্বর ব্লকের বিভিন্ন গ্রামে। জানা গিয়েছে, পরিযায়ী শ্রমিকদের স্থানীয় বনহাট আদিবাসী গার্লস হাইস্কুলের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে রাখার ব্যবস্থা করে প্রশাসন। কিন্তু ১৪ দিনের সময়সীমা পেরিয়ে গেলেও, তাঁদের বাড়ি ফেরার  অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না বলে অভিযোগ। প্রতিবাদে মঙ্গলবার দুপুর থেকে খাবার মুখে তোলেননি ভিনরাজ্যে থেকে আগত শ্রমিকরা। তবে পুলিশের অনুরোধে শিশুদের জন্য অবশ্য খাবার নিতে রাজি হয়েছেন অনশনকারীরা।

আরও পড়ুন: করোনায় সুরক্ষাবিধি নিয়ে বিক্ষোভের জের, বদলি ১৩ পুলিশকর্মীর

মুম্বই থেকে ফেরার পর কোয়ারেন্টাইনে সেন্টারে রয়েছেন পরিযায়ী শ্রমিক নাসিরুদ্দিন শেখ। তিনি জানালেন, 'আমার ১৯ দিন আগে মুম্বই থেকে এসেছি। আটদিন ছিলাম জয়কৃষ্ণ হাইস্কুলে। তারপর আনা হয় বনহাটে। এখন বলছে, কয়েকজনের নাকি করোনা হয়েছে, কিন্ত রিপোর্ট দেখাচ্ছে না। আমাদের আটকে রেখেছে।'  প্রশাসন সূত্রে অবশ্য খবর, কোয়ারেন্টাইনে যাঁরা রয়েছে, তাঁদের মধ্যে তিনজনের করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। তাই ওই পরিযায়ী শ্রমিকদের এখনই বাড়ি ফেরার অনুমতি দেওয়া যাচ্ছে না।