করোনা আতঙ্কের মাঝে এবার নয়া বিপত্তি। কাজে যোগ দিতে যাওয়ার পথে পুলিশি হেনস্তার শিকার হলেন নার্স! স্কুটার নামিয়ে কর্তব্যরত কনস্টেবল ওই তরুণীকে চড় মারেন বলেও অভিযোগ। ভাইরাল ভিডিও ঘিরে শোরগোল পড়েছে হুগলির চন্দনগরে। থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন চন্দনগর মহকুমা হাসপাতালের সুপার। 

আরও পড়ুন: করোনার গ্রাসে বন্ধ হয়েগেল কলকাতা হাইকোর্ট, কোয়ারান্টাইনে একাধিক অফিসার

ঘটনার সূত্রপাত্র দিন দিয়েক আগে। সন্ধেবেলায় পুলিশকর্মীরা টহল দিচ্ছিলেন চন্দননগরের ফটকগোড়া এলাকায়। তখন স্কুটি চালিয়ে কাজে যোগ দিতে যাচ্ছিলেন ওই নার্স।কর্তব্যরত পুলিশকর্মী যখন পথ আটকান, তখন ওই তরুণী নিজের পরিচয় দেন। এমনকী, তিনি যে কাজে হাসপাতালে কাজে যোগ দিতে যাচ্ছেন, সেকথাও জানান। কিন্তু তাতেও সমস্যা মেটেনি। এরপর ওই নার্সের সঙ্গে কর্তব্যরত পুলিশকর্মীদের বচসা শুরু হয়। এখানেই শেষ নয়। এক মহিলা কনস্টেবল ওই তরুণীকে চড়ও মারেন বলে অভিযোগ। তাতে পরিস্থিতি আরও উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। শেষপর্যন্ত অবশ্য ওই নার্সকে ছেড়েও দেওয়া হয়।

আরও পড়ুনL করোনা আবহে নিশানায় মুখ্যমন্ত্রী, সোশ্যাল মিডিয়ায় 'কুরুচিকর পোস্ট' যুবকের

আরও পড়ুন: পরিকল্পনামাফিকই কি পুলিশের উপর হামলা, জল্পনা উসকে দিলেন রাজ্যের মন্ত্রী

জানা গিয়েছে, এক প্রত্যক্ষদর্শী ঘটনাটির ভিডিও করে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট কর দেন। ভিডিওটি ভাইরাল হতে সময় লাগেনি। চন্দননগর মহকুমা হাসপাতালের সুপারের কাছে অভিযোগ জানান আক্রান্ত নার্স। চন্দননগর কমিশনারেটের এক পুলিশকর্তার দাবি, ঘটনার পরের দিন ওই তরুণীকে সঙ্গে নিয়ে থানায় আসেন সুপার। তখনকার ঝামেলা মিটেও যায়। কিন্তু পরে আবার সুপারই থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। তদন্তে নেমেছে পুলিশ।