কৈ মাছ গলায় ঢুকে মারা গেলেন ক্য়ানিং এর বাসিন্দা চুনো মন্ডল।লকডাউনের জেরে আগেই হারিয়েছিলেন কাজ। তাই আচারের ব্য়বসা না করতে পেরে ধরেছিলেন মাছের ব্য়বসা। কিন্তু শেষমেষ কৈ মাছ গলায় ঢুকে প্রাণ হারাতে হল। ঘটনার পর দ্রুত তাঁকে হাসাপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় কিন্তু ততক্ষণে সব শেষ। 

আরও পড়ুন, হাওড়ার পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় বড় সিদ্ধান্ত নবান্নের,রাতেই শুরু ধরপাকড়

সূত্রের খবর,  পেশায় আচার ব্যবসায়ী রাস্তায় ঘুরে ঘুরে  আচার বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। লকডাউন এর  প্রভাবে বন্ধ হয়ে গেছিল তার জীবিকা । তাই সংসার চালানোর তাগিদে বাড়ির পুকুর থেকে মাছ ধরে বিক্রি করতেন। এদিন সেই আশাতেই পুকুরে নেমেছিলেন। হাচা করে মাছ ধরছিলেন, তখন একটি কই মাছ ধরেন। সেটিকে মুখের মধ্যে দাঁত দিয়ে চেপে রেখে আবার মাছ ধরার চেষ্টা করেন। আর তাতেই বিপদ ঘটে। মুখ থেকে অসাবধানতা বশত গলায় কৈ মাছ গলায় ঢুকে যায়। তড়িঘড়ি বাড়ির লোকজন ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে আসতে চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন।

আরও পড়ুন, রিপোর্ট 'নেগেটিভ' -পাঠানো হল বাড়ি, ভূল থাকায় ফের ডাক, বাঙ্গুর হাসপাতালে মৃত্যু করোনা আক্রান্তের


অপরদিকে, লকডাউন চলাকালীন রাজ্য়ের প্রায় সব দোকান-বাজারই বন্ধ করা হয়েছে। পাড়ায়-পাড়ায় কিছু লোক ফেরি করছে অনেকেই। সেই আশাতেই বাঁচার তাগিদ পেয়েছিলেন চুনো মন্ডল। কিন্তু  এক নিমেষে তাও শেষ।  মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে ক্যানিং থানা পুলিশ। ময়নাতদন্তের পরই বেরিয়ে আসবে আসবে আসল কারণ, যে কি করে এই ঘটনা ঘটল। এই মুহূর্তে পুরো ঘটনাটাই খতিয়ে দেখছে পুলিশ। 

 

 

 

 

রাজ্য়ে মৃত বেড়ে ২২, বাংলায় করোনা আক্রান্ত ৫২২

চিন থেকে সোজা কলকাতা বিমানবন্দরে, ১০ টন করোনা-চিকিৎসার সামগ্রী নিয়ে শহরে নামল উড়ান

স্ক্রিন ছুঁয়েই প্রিয় জনের অনুভূতি, করোনা রুখতে শহরের হাসপাতালে চালু 'ভারচুয়াল ভিজিটিং আওয়ার্স'

বাবুলের কথা এবার চিকিৎসক সংগঠনের মুখে,করোনায় মৃত্যু স্বাস্থ্য়কর্তার -স্বীকার করুক রাজ্য

এবার বেসরকারিতেও করোনা চিকিৎসায় মিলবে বিনামূল্য়ের পরিষেবা, হাসপাতালের খরচও দেবে রাজ্য সরকার