আশিষ মণ্ডল, বীরভূম: বেপরোয়া গতির কারণেই কি ঘটল দুর্ঘটনা? নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সেতু থেকে উল্টে গেল যাত্রী বোঝাই বেসরকারি বাস। কম-বেশি আহত হয়েছেন ২৫ জন যাত্রী। আহতেরা সকলেই ভর্তি হাসপাতালে। বুধবার সকালে দুর্ঘটনা ঘটল বীরভূমের মল্লারপুরে।

আরও পড়ুন: রামপুরহাটে বিস্ফোরক বোঝাই ট্রাক্টর আটক পুলিশের, চালক-সহ পলাতক ৩

সিউড়ি থেকে রামপুরহাটের দিকে যাচ্ছিল একটি বেসরকারি যাত্রীবাহী বাস। সকালের ব্যস্ত সময়ে বাসে যাত্রী ছিল যথেষ্টই। বাসটি যখন মল্লারপুরের আম্ভা মোড়ের কাছে জয়রামপুর সেতুর কাছে পৌঁছয়, তখনই ঘটে দুর্ঘটনা। যাত্রীদের অভিযোগ, আম্ভা মোড় পেরনোর পরই আমচকাই বাসের গতি কয়েকগুণ বাড়িয়ে দেন চালক।  দুর্ঘটনাগ্রস্ত বাসের যাত্রী অভয় কুমার রায় বলেন,' দেউচা থেকে ডাক্তার দেখানোর জন্য তারাপীঠ যাচ্ছিলাম। সারা রাস্তা বাসটি ধীরগতিতেই যাচ্ছিল। আম্ভা মোড় পেরোতেই গতি কয়েক গুণ বেড়ে যায়।' শেষপর্যন্ত জয়রামপুর সেতুতে একটি লরিকে পাশ কাটাতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারান বাসের চালক। গতি এতটাই বেশি ছিল, যে সেতুর রেলিং ভেঙে বাসটি ঝুলতে থাকে। এরপরই পরিস্থিতি বেগতিক বুঝে বাসের চালক ও খালাসি পালিয়ে যান বলে অভিযোগ।

আরও পড়ুন: উল্টো রথের দিনে রামেশ্বরপুর গ্রামে নিয়ম পালন, ইছামতীর পাড়ে হল কাঠামো পুজো

দুর্ঘটনার পর স্থানীয় বাসিন্দারাই বাসের যাত্রীদের উদ্ধার করে। কেউ হতাহত হননি, তবে অল্পবিস্তর চোট পেয়েছে ২৫ জন। তাঁদের ভর্তি করা হয়েছে মল্লারপুর ব্লক হাসপাতাল ও রামপুরহাট মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে।