বধূকে একা পেয়ে দীর্ঘদিন ধরেই ধর্ষণ করেছেন কাকা ও ভাইপো। এদিকে  চক্ষুলজ্জার ভয়ে এতদিন কিছু বলতে পারেননি ওই বধূ। অবশেষে অশোকনগর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করলেন ওই নির্যাতিতা। তাঁরই অভিযোগের ভিত্তিতে অশোকনগর থানার পুলিশ গ্রেফতার করেছে দুই অভিযুক্তকে। ধৃতের নাম সেলিম মণ্ডল ও তাঁর ভাইপো রবিউল মণ্ডল। ঘটনাটি ঘটেছে অশোকনগর থানার বড়ো বামুনিয়া এলাকায়। 

আরও পড়ুন, করোনার জের, সোমবার থেকে রাজ্যের সমস্ত স্কুল কলেজ বন্ধের নির্দেশ দিল রাজ্য় সরকার

জানা গিয়েছে, ওই নির্যাতিতা জানিয়েছেন, তাঁর স্বামী তাঁকে ছেড়ে চলে যাওয়ায় বামুনিয়া এলাকায় একটি বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। অভিযোগ, তাঁর একা থাকার সুযোগ নিয়ে প্রতিবেশী সেলিম ও রবিউল মণ্ডল তাঁকে ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ করতেন। দীর্ঘদিন ধরেই এই ঘটনা চলতে থাকে। কিন্তু  চক্ষুলজ্জার ভয়ে  ওই বধূ কাউকে কিছু বলতে পারেননি। অবশেষে অত্যাচারের সীমা ছাড়িয়ে যাওয়া, অশোকনগর থানায় গতকাল শুক্রবার রাতে ধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করেন ওই নির্যাতিতা। পুলিশ দুজনকেই গ্রেফতার করেছে শুক্রবার রাতেই। 

আরও পড়ুন, ফের চলন্ত ট্রেনে পাথর বাজের হামলা, গুরুতর আহত এক মহিলা যাত্রী


সূত্রের খবর, শনিবার ধৃত কাকা-ভাইপোকে বারাসত আদালতে তোলা হয়েছে। কাকা ও ভাইপোর বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও খুনের হুমকির মতো জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা দায়ের করেছে অশোনগর থানার পুলিশ। নির্যাতিতা মহিলার মেডিকেল পরীক্ষা করে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

আরও পড়ুন, ভিসা বাতিলের পর দেশে ফিরতে মরিয়া বিদেশিরা, বিমানের টিকিটের চাহিদা হঠাৎই আকাশছোঁয়া