মিঠু সাহা, শিলিগুড়ি: বিহার থেকে ফিরেছেন একজন, অন্যজন ফিরেছেন কলকাতা থেকে। সংক্রমিত হলেন দু'জনই। ফের করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলল শিলিগুড়িতে। আক্রান্তদের বাড়ি ও লাগোয়া এলাকা জীবাণুমুক্ত করেছে প্রশাসন। পরিবারের লোকেদের পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে কোয়ারেন্টাইনে। 

আরও পড়ুন:করোনা আতঙ্কে ঠাঁই নেই গ্রামে, আমবাগানে একাকী দিনযাপন যুবকের

জানা গিয়েছে, যিনি বিহার থেকে ফিরেছেন, তাঁর বাড়ি শিলিগুড়ি শহরের ৬ নম্বর ওয়ার্ডে। ওই ব্যক্তি পেশায় ব্যবসায়ী। শহরের ২৭ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা আরও এক ব্যক্তি গিয়েছিলেন কলকাতায়। ফেরার পর নিয়মাফিক দু'জনেরই স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়। তখন কিন্তু কোনও উপসর্গ ছিল না। হোম কোরায়েন্টাইনে ছিলেন তাঁরা। দ্বিতীয় বার যখন সোয়াব বা লালারস পরীক্ষা করা হয়, তখন করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে ওই দু'জনেরই। আক্রান্তদের ভর্তি করা হয়েছে শিলিগুড়ি লাগোয়া মাটিগাড়ার কোভিড হাসপাতালে। যাঁরা  ওই দুই ব্যক্তির সংস্পর্শে এসেছিলেন, তাঁদের সন্ধান চালাচ্ছে স্বাস্থ্য দপ্তর। আক্রান্তেরা  যে এলাকার বাসিন্দা, সেই এলাকা পরিদর্শনও করেছেন শিলিগুড়ির মহকুমাশাসক।  করোনা মোকাবিলায় উত্তরবঙ্গের দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিক সুশান্ত রায় অবশ্য জানিয়েছেন, আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। পরিস্থিতির উপর নজর রাখা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: মালদহে নতুন করে ১১ করোনা আক্রান্তের হদিস, কোভিড ১৯ সংক্রমণে হাফ-সেঞ্চুরি পার করল তিন জেলা

আরও পড়ুন: চতুর্থ দফার লকডাউনে রাজ্যে ও দেশে কী খলো-কী বন্ধ, দেখে নিন এক ঝলকে

উল্লেখ্য, চলতি মাসের গোড়ার দিকে করোনা আক্রান্ত হন উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের এক চক্ষুরোগ বিশেষজ্ঞ। গত ২৮ এপ্রিল বিশেষ বাসে কলকাতা থেকে শিলিগুড়িতে ফিরেছিলেন তিনি। সেই বাসে ছিলেন আরএ ২৭ জন চিকিৎসক। করোনা সতর্কতায় তাঁদের সকলেই কোয়ারেন্টাইনে পাঠিয়ে দেয় দার্জিলিং জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর।