নুসরত জাহানকে সাংসদ হওয়ার দায়িত্ব বোঝাতে এসে নিজেই ট্রোলড হয়ে বসল নেটিজেন। "বাংলা জ্বলছে কিছু করুন আপনি। আপনি কেবলমাত্র একজন তারকা নন, বসিরহাটের এমএলএ-ও। তাই আপনাকে বলা।" এর উত্তরে খুব মিষ্টি ভাষায় কড়া জবাব দিলেন নুসরত। "রিল্যাক্স। বাংলা এখনও ঠিকভাবেই চলছে। আর আমি একজন এমএলএ নই।" নুসরতের এই জবাবে ভক্তরা অভিনেত্রীর প্রশংসায় পঞ্চমুখ। নেটিজেন ভুল তথ্য জেনেই নুসরতের থেকে জবাবদিহি চেয়ে বসেছিল। তার উত্তর যে নুসরত এভাবে দেবেন তা কেউই ভাবেননি। 

আরও পড়ুনঃঅ্যাসিড হামলার প্রচার টিকটকে, বিজেপির এমএলএ ট্যুইটে ভিডিও পৌঁছল জাতীয় মহিলা কমিশনে, বিপাকে টিকটকার

সারক্যাজমের টাচ রেখেই উচিত শিক্ষা দিয়েছেন সেই নেটিজেনকে। কমেন্ট সেকশনে ভক্তরা সেই ব্যক্তিকে যথেষ্ট ভালমন্দ শুনিয়ে ফেলেছে এরই মধ্যে। নুসরত নিজের বেশ কয়েকটি সেলফির কোলাজ বানিয়ে পোস্ট করেছিলেন ইনস্টাগ্রামে। সেখানেই এমন কেমন্ট করে বসে সেই ব্যক্তি। এর আগেও নুসরতের পোস্টে এমন রাজনৈতিক মন্তব্য করেছে বহু সাইবারবাসী। এভআবে সোশ্যাল মিডিয়ায় মন্তব্য করা থেকে নিজেকে বিরত রাখেন নুসরত। তবে কিছু ক্ষেত্রে উত্তর না দিয়ে থাকা যায় না বলেই এই পদক্ষেপ অভিনেত্রী। 

আরও পড়ুনঃটিকটক ভার্সেস ইউটিভব, কনটেন্টের অভাবে সবটাই কি পাব্লিসিটি স্টান্ট

 

প্রসঙ্গত লকডাউনেও ভক্তদের বিনোদনের কোনও খামতি রাখছেন না অভিনেত্রী। নুসরত প্রায় রোজই সোশ্যাল মিডিয়ায় কিছু না কিছু পোস্ট করে নেটিজেনদের বিনোদনের জোগান দিচ্ছেন। গান করা, নাচ করা, কেউ  আবার টিকটক করছেন। এছাড়াও রান্না করে রেসিপি সমেত পোস্ট করা। পাশপাশি রয়েছে ওয়ার্ক আউটের ভিডিও করে পোস্ট। প্রসঙ্গত, লকডাউনে মধ্যে দিনের পর দিন সতর্কবার্তা জারি করে চলেছে সরকার। সতর্ক করছেন তারকারাও। বিনোদন জগতের সকলেই সতর্ক করার এই বিষয় যথেষ্ট উদ্যোগ নিয়েছেন। 

আরও পড়ুনঃশরীরে কীভাবে থাবা বসায় করোনা, জানালেন বিশেষজ্ঞরা

আরও পড়ুনঃকী করে করোনার হাত থেকে রক্ষা করবেন আপনার বাড়ির বয়স্ক সদস্যদের, রইল তারই টিপস

আরও পড়ুনঃসাবধান, করোনা আতঙ্কের মধ্যে এই কাজ করলেই হতে পারে জেল