গত ২১ অগাস্ট জন্মদিনের এলাহি পার্টি দিয়েছিলেন কিংবদন্তী স্প্রিনটার উসেইন বোল্ট। সেখানে তাকে উদ্দাম নাচতে ও আনন্দ করতেও দেখা গিয়েছে।  করোনা আবহে সামাজিক দূরব্ত মানার কোনও নিয়মকেই তোয়াক্কা করেননি বিশ্বের দ্রুততম মানব। তারপরই করোনা আক্রান্ত হন জামাইকান স্প্রিনটার। প্রাথমকিভাবে কিছু জটিলতা থাকলেও জামাইকার স্বাস্থ্য মন্ত্রক আটটি অলিম্পিক সোনাজয়ী তারকার করোনা সংক্রামিত হওয়ার খবরে সিলমোহর দেয়। বর্তমানে তার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে আইসোলেশনে রয়েছেন তিনি। কিন্তু বোল্টের করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবরে দুশ্চিন্তার কালো মেঘ আইপিএল দল কিংস ইলেভেন পঞ্জাবেও।

আরও পড়ুনঃবিজেপি-র মুখ্যমন্ত্রী পদের মুখ কি সৌরভ, সরকারি জমি ফেরানোয় বাড়ছে জল্পনা

কারণ গত শুক্রবার বোল্টের জন্মদিনের পার্টিতে আমন্ত্রিত অতিথিদের তালিকায় ছিলেন ক্যারেবিয়ান তারকা ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইলও। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটডেরে তারকা প্লেয়ার রাহিম স্টার্লিংও। আইপিএলে কিংস ইলেভেন পঞ্জাব দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ক্রিস গেইল। কয়েক দিনের মধ্যেই আরব আমিরশাহিতে তার দলের সঙ্গে যোগ দেওয়ার কথা। কিন্তু বোল্টের  করোনা পজিটিভ নিশ্চিত হওয়ার পরেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করে ক্রিস গেইলকে নিয়ে। বোল্টের পার্টিতে উপস্থিত থাকার কারণে তার মধ্যে সংক্রমণ ছড়িয়েছে কিনা তা নিয়েও উঠছে প্রশ্ন। ফলে গেইলের স্বাস্থ্য নিয়ে খুবই উদ্বিগ্ন কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের কর্তারা।

আরও পড়ুনঃজন্মদিনের পার্টিতে উদ্দাম নাচ, তারপরই করোনা আক্রান্ত উসেইন বোল্ট

তারকা ক্রিকেটার অবশ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় অনুরাগীদের আশ্বস্ত করেছেন যে, তাঁর করোনা টেস্টের রেজাল্ট নেগেটিভ। ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে তাঁর কাছ থেকে স্বাস্থ্যকর্মীদের নমুনা সংগ্রহের ছবি পোস্ট করে গেইল লেখেন, ‘দিন দু’য়েক আগে প্রথম কোভিট টেস্ট.. যাত্রা করার আগে আমার দু'টি নেগেটিভ টেস্টের প্রয়োজন।' পরে আরও একটি পোস্টে তিনি লেখেন, 'শেষের করোনা টেস্টটা আমার নাকের অনেক গভীর পর্যন্ত চলে যায়। যদিও রেজাল্ট নেগেটিভ।' কিন্তু এবছর করোনা আবহে আইপিএলে স্বাস্থ্য সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে যা কড়াকড়ি তাতে গেইলের ভবিষ্যৎ নিয়ে একটা আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে। 

আরও পড়ুনঃসচিন-ধোনি-কোহলিদের ব্যাট সারাই করে তিনি জগৎ বিখ্যাত, তার দুর্দিনে পাশে এসে দাঁড়ালেন সোনু সুদ