তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজ আগেই জিতে নিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। শুক্রবারের ম্যাচে একটাই কাজ বাকি ছিল তাদের। প্রতিপক্ষকে ধুয়ে দেওয়া। ওয়ার্নারের ব্যাটের দাপটে সেটাও করে ফেললেন অজি ক্রিকেটাররা। মেলবর্নে শেষ ম্যাচে, টস জিতে শ্রীলঙ্কাকে ব্যাটিং করতে পাঠায় অস্ট্রেলিয়া। প্রথম দুটি ম্যাচের মত শেষ ম্যাচেও লঙ্কার ব্যাটসম্যানরা খাবি খেয়ে গেলেন। ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৪২ রান করল লাসিথ মালিঙ্গার দল। ৫৭ রান কুশাল পেরেরার। 

আরও পড়ুন - অনুশীলনে চোট রোহিতের, প্রথম টি২০র আগে প্রবল ধোঁয়াশা ভারতীয় দলে

জবাবে ব্যাট করতে নেমে বার দুয়েক চাপে পরেছিল অস্ট্রেলিয়া। একবার ব্যক্তিগত ১২ রানের মাথায় ক্যাচ তুলেও বেঁচে গেলেন ওয়ার্নার। তারপর একবার বাঁচলেন ডেভিড। বল দুবার উইকেটে লাগার পরও বেল পরল না। সেই দৃশ্য দেখে সবার মুখেই হাসি। 

 

 

আরও দেখুন - চোখ রাঙাচ্ছে দিল্লির দূষণ, কী বলছেন বাংলাদেশ কোচ

বিশ্বকাপে দুরন্ত ছেন্দে থাকলেও ইংল্যান্ডে গিয়ে মুথ থুবড়ে পরেছিলেন ওয়ার্নার। পাঁচটি টেস্ট খেলে কলঙ্কের রেকর্ড গড়েছিলেন তিনি। তবে আবার সাদা বলের ক্রিকেটে ফিরতেই অ্যাসেজের মেঘ কাটিয়ে উজ্জ্বল ওয়ার্নারের ব্যাট। শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে তিনটি টি২০ ম্যাচেই লঙ্কার বোলারদের ঝলসে দিয়েছেন ওয়ার্নার। 

আরও পড়ুন - অবশেষে নির্বাসনের কবল থেকে মুক্তি, আর্জেন্টিনা দলে লিও মেসি

ম্যাচ সেরা ও সিরিজ সেরা দুটি পুরস্কারই পেলেন তিনি। তিনটি ইনিংসে নট আউট। রান করলেন ২১৭। শ্রীলঙ্কাকে হোয়াইট ওয়াশ করে এবার রবিবার থেকেই এশিয়ার আরেক দল পাকিস্তানের মুখোমুখি অস্ট্রেলিয়া। তিনটি টি-২০ ম্যাচ রয়েছে তাঁদের বিরুদ্ধে। সেই সিরিজে পাকিস্তানের সব থেকে বড় মাথা ব্যাথে এখন ওয়ার্নারের ঝড় থামানো। 

আরও পড়ুন - ক্রিকেটে করিনা কাপুর, অস্ট্রেলিয়ায় টি২০ বিশ্বকাপ ট্রফি হাতে বলিউড অভিনেত্রী