ফের বাংলাদেশের প্রাক্তন অধিনায়ক তথা সাংসদ মাশরফি মোর্তাজা পরিবারে করোনা ভাইরাসের থাবা। মারণ ভাইরাস যেন কিছুতেই পিছু ছাড়ছে মাশরফির পরিবারের। এর আগে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন মোর্তাজা ও তার স্ত্রী। বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার মিরপুরের বাড়িতেই আইসোলেশনে ছিলেন তারা। প্রায় এক মাসের চিকিৎসার পর সুস্থ হন দুজনে। তবে এবার করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হলেন মশরফির গোটা পরিবার। তালিকায় রয়েছেন মোর্তাজার বাবা, মা, মামী, ছোট ভাইয়ের বউ সকলে। 

আরও পড়ুনঃবাংলাদেশের জাতীয় ফুটবল দলে করোনার থাবা, আক্রান্ত ১১ জন ফুটবলার

সম্প্রীতি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার উপসর্গ দেখা যায় মাশরফই মোর্তাজার সকলের শরীরে। মাশরাফির বাবা গোলাম মোর্তাজা, মা হামিদা মোর্তাজা ও মামী এবং ছোট ভাইয়ের স্ত্রীর নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছিল ৭ আগস্ট। চারজনের করোনা টেস্টের রিপোর্টই পজিটিভ এসেছে। তবে আক্রান্ত সকলেরই শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক নয়। স্থিতিশীল রয়েছেন সকলেই। কিন্তু গোটা পরিবার করোনা আক্রান্ত হওয়ায় কার্যত রাতের ঘুম উড়েছে মাশরফি মোর্তাজার। আপাতত বাড়িতেই তাদের করোনা আক্রান্ত মাশরফির বাবা, মা, মামী, ছোট ভাইয়ের সকলের চিকিৎসা চলছে।

আরও পড়ুনঃভারতের জাতীয় হকি দলে করোনার থাবা, আক্রান্ত অধিনায়ক মনপ্রীত সিং সহ ৫

আরও পড়ুনঃকোঝিকোড়ের বিমান দুর্ঘটনায় নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা, আহতদের দ্রুত সুস্থতা কামনা সচিন-বিরাট-রোহিতদের

শুধু গোটা পরিবার করোনা আক্রান্তের অস্বস্তি নয়, মাশরফি মোর্তাজার গোটা বাড়ি লকডাউন করে দেওয়া হয়েছে প্রশাসনের তরফে। যেহেতু বাড়িতে চারজন করোনায় আক্রান্ত তাই কাউকে বেরোতে দেওয়া হচ্ছে না। বাড়িতে নতুন কারও আসতে পারবে না। আগামী কয়েকদিন বাড়ি লকডাউন থাকবে বলেই জানিয়ে দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। বাংলাদেশের নড়াইল-২ আসনের এমপি গোটা পরিবার করোনা আক্রান্ত হওয়ায় উদ্বেগ বেড়েছে প্রশাসনিক স্তরে। নিজে মারণ ভাইরাস থেকে মুক্তি পেলেও সেই সুখ  বেশিদিন স্থায়ী হল না বাংলাদেশের প্রাক্তন অধিনায়কের কপালে।