রেকর্ডের ভাঙাগড়া প্রতিটি খেলার অঙ্গ। আজ কোনও খেলোয়াড় বা দল যে নতুন রেকর্ড তৈরি করেন, ভবিষ্যতে সেই রেকর্ড কখনো না কখনো ভেঙে যায়। সদ্য অবসর ঘোষণা করা প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির নামেও লেখা আছে বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ রেকর্ড। সময়ের সাথে সাথে একদিন সেই রেকর্ডগুলি হয়তো ভেঙে যাবে। কিন্তু দেশের অধিনায়ক হিসেবে বিশ্ব পর্যায়ে ট্রফি জেতার যে রেকর্ড ধোনি করেছেন, তা সম্ভবত কারোর পক্ষেই ভাঙা সম্ভব হবে না, এমনটাই মন্তব্য করেছেন ভারতের প্রাক্তন ওপেনার গৌতম গম্ভীর। ধোনির অধিনায়কত্বে ভারত তিনটি আইসিসি ট্রফি পেয়েছে। ২০০৭ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ, ২০১১ একদিনের ক্রিকেটের বিশ্বকাপ ও ২০১৩ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি।

আরও পড়ুনঃঅবসর জীবনে নিজেই নিজেকে উপহার দিলেন ধোনি, ছবি ফাঁস করলেন সাক্ষী ধোনি

গম্ভীরের কথায়, এই অনন্য রেকর্ডকে ছাপিয়ে যেতে পরবর্তী কোনও ভারতীয় অধিনায়কের বহু সময় লাগবে। তার নিজের ধারণা, শেষ পর্যন্ত এই রেকর্ড অক্ষতই থেকে যাবে এবং চিরকাল থাকবে। যাবতীয় শতরান করার রেকর্ড ভেঙে যাবে, কেউ একজন এসে হয়তো রোহিত শর্মার একদিনের ক্রিকেটে ডবল সেঞ্চুরির সংখ্যাও ছাপিয়ে যাবে। কিন্তু অধিনায়ক হিসেবে এতগুলি আইসিসি ট্রফি জেতা খুবই কঠিন এবং আশ্চর্য কৃতিত্ব। এই মুহূর্তে দাঁড়িয়ে গম্ভীরের মনে হয় না কেউ পারবে এই রেকর্ড ভেঙে দিতে। 

আরও পড়ুনঃশুধু ব্যাট নয়, ধোনির হাতে কথা বলে বন্দুকও

আরও পড়ুনঃঅবসর নিলেন মাহি, সচিন থেকে সৌরভ-বিরাট কে কী বললেন

প্রাক্তন ভারত অধিনায়কের সঙ্গে গম্ভীরের সম্পর্ক খুব ভালো এমনটা কোনওদিন কেউ মনে করেন না। বরং প্রকাশ্যে খেলার মাঠে তাদেরকে দু-একবার তর্কে জড়িয়ে পড়তেও দেখা গিয়েছে তাদের। সেই জায়গা থেকে গম্ভীরের এই মন্তব্য অবাক করেছে অনেকেই। প্রসঙ্গত ধোনির ২০০৭ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ এবং ২০১১ একদিনের ক্রিকেটের বিশ্বকাপ জেতায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল গম্ভীরের। দুটি ফাইনালেই ম্যাচ জেতানো ইনিংস খেলেছিলেন তিনি।