মহা তারকা হলেও মহেন্দ্র সিং ধোনির যে তারকাসুলভ কোনও ব্যবহার নেই সেই কথা একাধিকবার বলেছেন তার সতীর্থরা। তা সে ভারতীয় দলের হোক বা ধেনির আইপিএলের দল চেন্নাই সুপার কিংসের। ধোনি বন্দনায় পঞ্চমুখ হয়েছেন সবাই। ধোনির অনেক সতীর্থরাই বলেছেন ধোনি হোটেলে যে রুমে থাকেন সেই রুমেই সকলকে ডেকে নিয়ে আড্ডায় বসেন। ধোনির ঘরে আড্ডা দিতে পছন্দও করেন সকলে। দিনের ফাঁকা সময় বাদেও, এমনও অনেক দিন গিয়েছে যে মধ্যরাত পর্যন্তও চলেছে আড্ডা। কিন্তু সকল ক্রিকেটাররা ধোনির ঘরেই আড্ডা দিতে পছন্দ করেন কেনও সে তথ্য অজানাই ছিল সকলের। এবার সেই তথ্যই সকলের সামনে আনলেন চেন্নাই সুপার কিংসের ধোনির সতীর্থ প্রোটিয়া স্পিনার ইমরান তাহির।

আরও পড়ুনঃসামনে এল সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট

ইমরান তাহির জানান, ধোনির ঘরে সকল ক্রিকেটারজের যাওয়ার অন্যতম কারণ হল আম। হ্যা আম। আমের লোভেই সকলে ধোনির ঘরে যেত। আম বরাবরই খুব পছন্দের ধোনির। নানা রকমের আম খেতে পছন্দও করেন মাহি। তাই ধোনি নিজের ঘরে বিশ্বের সেরা সেরা সব আম নিয়ে আসতেন। বিশ্বের সেরা সব আম খাওয়ার উদ্দেশ্যেই চেন্নাইয়ের সতীর্থরা ধোনির ঘরে হামেশাই যাওয়া-আসা করেন। ধোনির সঙ্গে আড্ডা তো বটেই, আড্ডার পাশাপাশি নান রকমের আম খাওয়াও সকল ক্রিকেটারের লক্ষ্য ছিল। ধোনি নিজেও খেতেন ও এবং সকলকে ভাগ করেও দিতেন সেই সব সুস্বাদু আম। ধোনি এতটাই আম খেতে পছন্দ করেন যে ঘরের জমিয়ে রাখতেন নানা রকমের সুস্বাদু আম।

আরও পড়ুনঃদক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেটে করোনার থাবা,আক্রান্ত ২ প্লেয়ার সহ ৩ জন

আরও পড়ুনঃপ্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত স্পেনের বিশ্বকাপ জয়ী জাভি হার্নান্দেজ

শুধু ধোনির আম প্রেম নয়, ধোনির সঙ্গে প্রথম সাক্ষাতের স্মৃতিচারণা করেছেন ইমরান তাহির। প্রোটিয়া তারকা বলেন,'ধোনিকে আগে টিভিতে দেখেছি। তবে তখনও পর্যন্ত কখনও মুখোমুখি সাক্ষাৎ হয়নি। প্রথমবার দেখা হয় পুণের হয়ে খেলার সময়। এমন লেজেন্ডের সঙ্গে পরিচয় করার সময় একটু নার্ভাস ছিলাম। তবে ধোনিই পরিবেশটা হালকা করে দেয়। হোটেলের রুমে ঢোকার মুখে ধোনি আমাকে দেখে এগিয়ে আসে। বলে, তাহির ভাই ওয়েলকাম। এটা আমার রুম। যখন খুশি তুমি আসতে পারো।' তাহির পরক্ষণেই জানান,'ধোনির কথা শুনে মনেই হয়নি ও এতবড় ক্রিকেটার। আমার ভীষণ ভালো লেগেছিল। তারকা হওয়া সত্ত্বেও ধোনির পা সবসময় মাটিতেই থাকে। আমি তখন বলেছিলাম যে, অবশ্যই যাব তোমার ঘরে।' ধোনি খুব ভাল মনের মানুষ বলেও জানান তাহির।