অধিনায়ক হিসেবে ৫০ তম টেস্ট। টস ভাগ্য এদিনও তাঁকে হতাশ করেনি ভারত অধিনায়ক কোহলিকে। টস জিতে পুণের উইকেটে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিতে কোনও ভুল করেননি। ২০১৭ সালে পুণের উইকেটে টেস্ট ম্যাচ টিকেছিল তিন দিন। সেই স্মৃতি মাথায় রেখে বোলিংটা শক্ত করার পরিকল্পনা করেছে ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট।   হনুমা বিহারিকে বসিয়ে প্রথম দলে আনা হয়েছে ফাস্ট বোলার উমাশ যাদবকে। কিন্তু প্রথম দিনটা ভারতীয় বোলারদের কোনও প্রয়োজন পরেনি। ওপেনার রোহিত প্রথম টেস্টে জোড়া শতরান করলেও দ্বিতীয় টেস্টে ১৬ রানে ফিরে গেলেন। তবে ময়ঙ্ক ধরে রেখেছেন তাঁর ফর্ম। 

আরও পড়ুন - পাকিস্তানে এসে ক্রিকেট খেলুন, বিরাটকে কাতর আর্জি পাকিস্তানি যুবকের

রোহিত আউট হওয়ার পর ময়ঙ্ক ও পূজারার পার্টনারশিপ ভারতকে বড় রানের পথে এগিয়ে নিয়ে যায়। ১৩৮ রানের পার্টনারশিপ হয় দুজনের। ৫৮ রান করে ফিরে যান পূজারা। এরপর বিরাট ময়ঙ্ক পার্টনারশিপকে অবশ্য বেশিক্ষণ উইকেটে থাকতে দেয়নি প্রোটিয়া বোলিং। ১০৮ রানে করে আউট হলেন ময়ঙ্ক। তবে অধিনায়ক হিসেবে ৫০ তম টেস্ট খেলেতে নামা বিরাট কিন্তু আরও একটা টেস্ট শতরানের ভীত তৈরি করে ফেলেছেন। প্রথম দিনের শেষে ৬৩ রানে অপরাজিত থেকে সাজ ঘরে ফিরেছেন। অধিনায়কের সঙ্গে আছেন সহ অধিনায়ক, রাহেন। প্রথম দিনের শেষে ভারতের রান ২৭৩/৩।

আরও পড়ুন - বিসর্জনের ঢাকের তালে নেচে উঠলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় 

প্রথম টেস্টে দাপুটে জয়ের পর দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম দিনও চালকের আসনে বসে পরেছে ভারতীয় দল। প্রোটিয়া বোলিং শুক্রবার সকালে যদি ভারতীয় ব্যাটিংয়ে ধস নামাতে না পারে, তাহলে দ্বিতীয় টেস্ট থেকেও ক্রমশ দুরে সরে যেতে হবে তাদের। একে অশ্বিন জাদেজার স্পিন সামলাতে নাজেহাল হচ্ছে তারা, তার ওপর পুণের উইকেটে চতুর্থ ইনিংসে বড় রান তারা করতে হলে দ্বিতীয় টেস্টেই সিরিজ হাত ছাড়া করবে ফাফ ডুপ্লেসির দল। 

আরও পড়ুন - জুতো কেনার টাকা ছিল না একটা সময়, এখন সেই ছেলেই দেশের কাছে অনুপ্রেরণা, জসপ্রীত বুমরার না বলা কথা