বিশ্বকাপের পর থেকে ধোনির ভবিষ্যত নিয়েই আলোচনা চলছে ভারতীয় ক্রিকেট মহলে। অবসর নেবেন কি নেবেন না তাই নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে। এতদিন মুখে কুলুপ এঁটে থাকলেও, বোর্ডকে স্পষ্ট করে নিজের আগামী পরিকল্পনা জানিয়ে দিয়েছেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক, বোর্ড সূত্রে এমনটাই জানা যাচ্ছে।

প্রথমেই বলে রাখা যাক, এখনই কিন্তু অবসর নিচ্ছেন না তিনি। আবার আসন্ন ওয়েস্টইন্ডিজ সফরেও যাবেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন ৩৮ বছরের এই ক্রিকেটার। আপাতত দুই মাসের জন্য ক্রিকেট থেকে অব্যাহতি নিচ্ছেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক। কী করবেন এই সময়ে? ধোনি ফিরে যাচ্ছেন প্যারা রেজিমেন্টের ট্রেনিং-এ। বিশ্বকাপ ২০১৯ চলাকালীন যে বাহিনীর বলিদান ব্যাজ, তাঁর উইকেটকিপিং গ্লাভসে পরা নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছিল।

আরও পড়ুন - মাহির মুকুটে আরও এক পালক! নিঃসারেই পৌঁছলেন মাইলফলকে, সামনে শুধু সচিন

আরও পড়ুন - ধোনির দস্তানা বিতর্ক, কঠোর পদক্ষেপ আইসিসির! উপেক্ষিত বিসিসিআই

আরও পড়ুন - ধোনি পরলেন না, কিন্তু ওভালে 'বলিদান ব্যাজ'-এর প্রবেশ আটকাতে ব্যর্থ আইসিসি

বিশ্বকাপ ২০১১ জেতার পর ভারতীয় টেরিটোরিয়াল আর্মির প্যারাশ্যুট বাহিনীর সাম্মানিক লেফট্যানেন্ট কর্নেল করা হয়েছিল ধোনিকে। বিসিসিআই সূত্রে খবর, তিনি বিশ্বকাপ ২০১৯ শুরু হওয়ার আগে থেকেই বাহিনীকে কথা দিয়ে রেখেছিলেন বিশ্বকাপের পর দুই মাস তাদের সঙ্গে প্যারা জাম্পিং-এর ট্রেনিং নেবেন। এর আগে ২০১৫ সালেও বিশ্বকাপের পর এই ট্রেনিং-এ অংশ নিয়েছিলেন তিনি।

বোর্ডের এক পদাধিকারী সংবাদ সংস্থা পিটিআই-কে জানিয়েছেন, ধোনির মাসদুয়েকে জন্য ছুটিতে থাকার কথা ভারতীয় দলের অধিনায়ক বিরাচট কোহলি এবং নির্বাচক কমিটির চেয়ারম্যান এমএসকে প্রসাদকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। ভারতীয় বোর্ড বা নির্বাচকরা কখনই ধোনিকে অবসরের জন্য চাপ দেবেন না। তবে, দল নির্বাচনের ক্ষেত্রে নির্বাচকরাই শেষ কথা বলবেন। অর্থাৎ ধোনিকে যে উপেক্ষা করা হতে পারে তা ঠারে ঠারে বুঝিয়ে দিয়েছেন তিনি।   

ধোনি যে এখনই অবসর নিচ্ছেন না, তা স্পষ্ট করে দিযেছিলেন তাঁর ঘনিষ্ঠ বন্ধু অরুণ পাণ্ডে। পিটিআই-কে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে তিনি জানান, ধোনির মতো ক্রিকেটারের অবসর নিয়ে জল্পনা চলাটাই দুর্ভাগ্যজক। তবে ভারতীয় ক্রিকেট মহলে ধোনির পক্ষে সমর্থন দিন দিন কমছে। ধোনির উত্তরসুরি হিসেবে উঠে আসছে ২১ বছরের ঋষভ পন্থের নাম।  আসন্ন ক্যআরিবিয়ান সফরেও সম্ভবত ভারতীয় দলের উইকেটরক্ষক হিসেবে যাবেন পন্থই।