প্রথম পরামর্শটা দিয়েছিলেন প্রাক্তন অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। তারপর অনেকেই সেই কথার সুত্র ধরে টেস্ট ওপেনার হিসেবে রোহিতের হয়ে সওয়াল করেন। বিরাট-শাস্ত্রী জুটি বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই সমালোচকদের কথা উড়িয়ে দিলেও, টেস্ট ওপেনার রোহিতকে পরীক্ষা করলেন। আর ওপেন করতে নেমে রোহিত প্রথম টেস্টেই স্টার মার্কস নিয়ে পাস করলেন। দুই ইনিংসে দুই সেঞ্চুরি। প্রথম টেস্টের জয়ের ভিতটা তৈরি করেছেন হিটম্যানই। সবাই যেন চাপ মুক্ত। ভারত অধিনায়ক বিরাটের মুখেও এখন চওড়া হাসি। আপাতত চিন্তা আর চিন্তা নেই। তাই বলছেন, রোহিতকে লাল বলের ক্রিকেট উপভোগ করতে দিন। 

আরও পড়ুন - ফোকাসে পুণের ২২ গজ, বিরাট বলছেন তাঁর দল উত্তর খোঁজে, অজুহাত নয়

 


বিরাটের মতে রোহিতের মত ব্যাটসম্যান যদি শুরুতে একটা দুরন্ত পারফরম্যান্স করতে পারেন তাহলে, সব সময় ভারতীয় দল ম্যাচ জয়ের জন্য ঝাঁপাতে পারে। অধিনায়ক বলছেন, ‘আমরা ওঁর জন্য খুব খুশি। এখন সময় রোহিতকে লাল বলের ক্রিকেট উপভোগ করতে দেওয়া সময়। ’ এবার রোহিতের পাশাপাশি ময়ঙ্ক আগরওয়ালও যদি নিজের জায়গা পাকা করতে পারেন, তাহলে একটা বড় সমস্যার সমাধান হবে ভারতীয় ক্রিকেটে। 

আরও পড়ুন - ধোনির অবসর নিয়ে এবার মুখ খুললেন ভারতীয় দলের কোচ রবি শাস্ত্রী

এদিকে জাদেজা- অশ্বিন জুটি আবার অনেকদিন পর একসঙ্গে টেস্টের মঞ্চে নেমেছে। বিশাখাপত্তনমে সফল ভারতীয় স্পিন জুটি। চাহাল ও কুলদীপের দাপটে অশ্বিন-জাদেজা জুটি ছিল তুমুল চাপে। তবে দুই ভারতীয় স্পিনারকেও চাপ মুক্ত করার চেষ্টা করছেন ভারত অধিনায়ক। পুণেতে দ্বিতীয় টেস্টে নামার আগের দিন বিরাট বলছেন, ‘লাল বলের ক্রিকেটে ভারতীয় দলে প্রথম প্রাধান্য পাবে জাদেজা ও অশ্বিন। কারণ বল হাতে ওরা যতটা ভাল ততটাই ভাল ব্যাট হাতে। তাই সব দিক থেকে দলের ব্যালেন্স ঠিক থাকে।’

আরও পড়ুন - হাসপাতাল থেকে ছুটি, বেবি স্টেপে ফিরে আসার লড়াই শুরু হার্দিক পান্ডিয়ার