বেশিদিন আগের কথা নয়। অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট একটা কালো দিন দেখেছিল। বল বিকৃত করে দলকে সুবিধে পাইয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন সেই সময়ের অজি অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ, সহ অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার ও ব্যাটসম্যান ক্যামারন ব্যানক্রফট। গোটা ক্রিকেত বিশ্বে লজ্জার মুখে পরে তিন ক্রিকেটারকেই নির্বাসনে পাঠিয়েছিল ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। ডেভিড ওয়ার্নারের জীবনেও নেমে এসেছিল অন্ধকার। কিন্তু নির্বাসন কাটিয়ে আবার মাঠে ফিরে এসেছেন তিনি। আর শুধু ফিরে আসেননি। ডেভিডের ব্যাট কথা বলছে তাঁর দাপট নিয়ে। কিন্তু কেমন ছিল সেই সময়টা? ভাবলে এখনও চোখে জল চলে আসে ওয়ার্নারের স্ত্রী ক্যন্ডিসার। তাই শনিবার ডেভিড যখন একের পর এক রেকর্ড গুড়িয়ে দিয়ে ট্রিপল সেঞ্চুরি করলেন, তখন চোখে ভিজে গিয়েছিল ক্যান্ডিসার। 

 

 

আরও পড়ুন - রবিবার বোর্ডের বার্ষিক সাধারণ সভা, ফোকাসে কুলিং অফ ব্রেক

মাঠে বসে দেখেছেন ডেভিডের ব্যাটিং। হাততালি দিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন স্বামীকে। তারপর নিজের টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে একটা টুইট করলেন ক্যান্ডিসা। সেখানে লেখা মহাত্মা গান্ধীর একটি উক্তি। শক্তি কখনও শারীরিক সক্ষমতা থেকে আসে না। শক্তি আসে অদম্য ইচ্ছে মানসিক জোর থেকে। একই সঙ্গে ক্যান্ডিসা লেখেন কে তোমার ওপর বিশ্বাস রাখল সেটা বড় কথা নয়। বড় কথা তোমার নিজের প্রতি কতটা বিশ্বাস আছে। 

 

 

আরও পড়ুন - দ্বিতীয় দিনেই ইনিংসে হারের ভ্রুকুটি, অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ব্যাকফুটে পাকিস্তান

আইপিএলের দৌলতে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের ক্রিকেটারদের কাছে এখন সেকেন্ড হোম। ডেভিড ওয়ার্নরও আইপিলের শুরুর দিক থেকেই আছেন। তাই তাঁর স্ত্রীও ভারতে এসেছেন, থেকেছেন, এই দেশের সংস্কৃতি বোঝার চেষ্টা করেছেন। আর সেখানেই হয়তো মহাত্মা গান্ধীর বিষয়ে জেনেছেন ক্যান্ডিয়া ওয়ার্নার। তাই সেই অন্ধকার সময়ে ডেভিডকে মহাত্মা গান্ধীর কথা বলে অনুপ্রাণিত করেছেন। আর এই সফল্যের দিনে তাই ক্যান্ডিসার টুইটে উঠে এল মহাত্মা গান্ধীর উক্তি। 

আরও পড়ুন - ব্র্যাডম্যানের রেকর্ড ভাঙলেন ওয়ার্নার, দ্রুততম ৭ হাজার রানের মালিক হলেন স্মিথ