তিনি এখন ক্রিকেটর মধ্যে নেই। জাতীয় দলের তাঁর ফিরে আসান নিয়ে প্রায় প্রতিদিনই নতুন কথা শোনা যায়। কিন্তু ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড আপাতত ধোনির অবসরের সম্ভাবনা উড়িয়ে দিচ্ছে। তবে তাও ধোনি নিয়ে কৌতুলহের অন্ত নেই। বৃহস্পতিবার আবার সবার সামনে এলেন ধোনি। স্ত্রী সাক্ষীকে সঙ্গে নিয়ে প্রয়োগ করলেন নিজের গণতান্ত্রিক অধিকার। বৃহস্পতিবার ছিল ঝাড়খণ্ড বিধানসভার তৃতীয় পর্বের ভোট গ্রহণ। ধোনির শহর রাঁচিতেও এদিন ছিন ভোট গ্রহণ। তিনি ভারতীয় দলের প্রাক্তন নেতা। তাই এমন দিনে ঘরে বসে থাকার পাত্র তিনি নন। স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে এসে ভোটদানের বার্তা রেখে গেলেন এমএস। হাসি মুখেই বুথ ছাড়লেন তিনি। 

 

 

আরও পড়ুন - আইসিসি ব়্যাঙ্কিংয়ে প্রথম দশে ফিরলেন বিরাট, অনেকটা এগিয়ে রাহুল

দিন কয়েক আগেই ধোনি এসেছিলেন কলকাতায়। একটি সংস্থার বিজ্ঞাপনী শ্যুটিংয়ের জন্য শহরে এসেছিলেন ধোনি। তবে কলকাতা বিমান বন্দের পা রাখতেই একটা সমস্যার মধ্যে পরেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক। তাঁর ব্যাগ বদলি হয়ে যায়। প্রায় ৪০ মিনিট পর নিজের ব্যাগ পান মাহি। তাঁকে ক্রিকেটার বাইরে দেখে গোটা দেশের কৌতুলহ। কিন্তু ধোনি নিজে যেন এই কৌতুলহটা উপভোগ করছেন। শুধু বলে রেখেছেন জানুয়ারি পর্যন্ত এই নিয়ে প্রশ্ন না করতে। 

আরও পড়ুন - ফুটবলে পা রোহিত শর্মার, লা-লিগার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হলেন হিটম্যান

বৃহস্পতিবার ঝাড়খণ্ড বিধান সভার তৃতীয় দফার ভোটা গ্রহণ হল। এই পর্বে মোট ১৭টি আসনে করা হল ভোট গ্রহণ। এই ১৭টি সিটে লড়াই করেছেন ৩০৯ জন প্রার্থী। তাদের ভগ্য নির্ধারণ করলেন প্রায় ৫৬ লক্ষ ভোটার। ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের সময়ও ব্যস্ততার মাঝেও রাঁচি এসে ভোট দিয়েছিলেন ধোনি। আর এবার যখন শহরে ছিলন তখনতো আর কথাই নেই। 

আরও পড়ুন - দ্বিতীয় বিবাহ বার্ষিকীতে স্ত্রী অনুষ্কাকে বিশেষ উপহার দিলেন কোহলি