অপেক্ষা আর মাত্র কয়েকটা দিনের। কলকাতার মাটিতে প্রথম দিন রাতের টেস্ট নিয়ে উন্মাদনা তুঙ্গে। গোটা দেশ তাকিয়ে আছে ভারতীয় ক্রিকেটর একটা নতুন অধ্যায় দেখার জন্য। আর শহর কলকাতার কাছে ম্যাচটা মাঠে বসে দেখার সুযোগটা সব থেকে বেশি। তাই শহর কলকাতা ও সংলগ্ন অঞ্চলের ক্রিকেট প্রেমীরা ইডেন চত্তরে টিকিট নিয়ে প্রশ্ন করছেন। প্রথম দফায় প্রায় ছয় হাজার অন লাইট টিকিট ছেড়েছিল সিএবি। সব টিকিট বিক্রি প্রায় শেষ। সব থেকে বেশি টিকিট বিক্রি হয়েছে প্রথম তিন দিনের। অনেকেরই মনে হচ্ছে টিম ইন্ডিয়ার সামনে দক্ষিণ আফ্রিকা যদি চার দিনের মধ্যে হেরে যায় তাহলে শাকিব হীন বাংলাদেশ আর কতটা টিকতে পারেব? তাই শেষ দু’দিনের টিকিটের চাহিদা নেই বললেই চলে। 

আরও পড়ুন - স্মৃতি রেকর্ডের দিনে ক্যারিবিয়ানদের বিরুদ্ধে ভারতীয় মহিলা দলের সিরিজ জয়

প্রথম তিন দিনের টিকিট বিক্রির হার দেখে খুশি সিএবি কর্তারা। দিন রাচের টেস্টে খেলা হবে গোলাপী বলে। তাই এই ম্যাচের প্রথম দিন ২০ জন ব্রেস্ট ক্যানসারকে হারিয়ে স্বাভাবিক ছন্দে ফিরে আসা মহিলা উপস্থিত থাকতে চলেছেন। প্রথম দিনের ম্যাচে ৪০ মিনিটের বিরতীতে এইডস আক্রন্ত শিশুদের মধ্যে একটি চ্যারেটি ম্যাচের পরিকল্পনাও করা হয়েছে। হেলিকপ্টার থেকে স্কাই ডাইভাররা টুর্নামেন্টের ট্রফি ও ম্যাচ বল নিয়ে মাঠে আসবেন। ঐতিহাসিক এই টেস্টের প্রতিটা মিনিট যাতে মাঠে উপস্থিত দর্শকদের মনে আলাদা জয়গা করতে নিতে পারে সেই চেষ্টাই করছেন বাংলা ক্রিকেটের কর্তারা। 

 

আরও পড়ুন - ঘরোয়া ক্রিকেটে স্পট ফিক্সিং, গ্রেফতার দুই ভারতীয় ক্রিকেটার

ইডেনে ডে নাইট টেস্টের খেলা শুরু হবে প্রতিদিন দুপুর ১টা থেকে। ৩টে পর্যন্ত হবে প্রথম সেশন। তারপর ৪০ মিনিটের ব্রেক। দ্বিতীয় সেশন শুরু হবে ৩.৪০ মিনিটে। চলবে ৫.৪০ মিনিট পর্যন্ত। এরপর ২০ মিনিটের ব্রেক। সন্ধে ৬টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত হবে শেষ সেশনের খেলা।  এই ম্যাটচের জন্য যেমন থাকছে গোলাপী টিকিট তেমনই আলাদা লোগও তৈরি করে হয়েছে। ম্যাচের প্রথম দিন উপস্থিত থকতে চলেছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী। দেশের ক্রীড়া জগতের একাধিক নক্ষত্রকে সংবর্ধনা দেওয়া হবে। সাধারাণ দর্শকদের জন্যও শহরের একটি বড় বেসরকারী হাসপাতালের সঙ্গে চুক্তি করেছে সিএবি। ম্যাচের সময় প্রত্যেক দিন সেই হাসপাতালের অ্যাম্বুলেন্স যেমন থাকবে তেমনই থাকবেন ডাক্তার ও নার্সরা। কোনও দর্শক শারীরীক ভাবে কোনও সমস্যা বোধ করলে কাজ শুরু করবেন ডাক্তাররা। সব মিলিয়ে আয়োজন থেকে পরিশেবা, দেশর প্রথম ডে নাইট টেস্টে স্টার মার্কস নিয়ে পাশ করতে ঝাঁপিয়ে পরেছেন সিএবি কর্তারা। 

আরও পড়ুন - নিজের বিয়ের রাতেও সঙ্গী ক্রিকেট, পাক সমর্থকের ছবি ভাইরাল করল আইসিসি