ভোজনরসিকদের কাছে পমফ্রেট-এর কদরই আলাদা! এই মাছের অনেক রকম লোভনীয় পদ সামনে থাকলে কী আর ছাড়া যায়! আর মাছ ছাড়া দুপুরের খাওয়া অসম্পূর্ণ থেকে যায় বাঙালির। যে কোনও উৎসবে মাছ ছাড়া বাঙালির চলে না। তা দুর্গা পুজা হোক বা লক্ষ্মী পুজো মাছ লাগবেই। আর খানা-পিনার এই আয়োজনে পাতে যদি থাকে কোনও লোভনীয় মাছের পদ তাহলে তো কথাই নেই! পমফ্রেট-এর নানা মুখরোচক জনপ্রিয় পদের মধ্যে অন্যতম একটি হল পমফ্রেট কালিয়া। তাই আজকের এই রেসিপি জেনে বানিয়ে ফেলুন আর ঘরোয়া দাওয়াত জমে উঠুক ভাত আর এই পদের যুগলবন্দিতে। জেনে নিন কিভাবে বানাবেন পমফ্রেট কালিয়া-

আরও পড়ুন- উৎসব মরশুমে চটপট স্ন্যাকস্ চাই, সহজেই বাড়িতে বানিয়ে ফেলুন ফিশ কেক

পমফ্রেট কালিয়া বানাতে লাগবে —

পমফ্রেট মাছ (মাঝারি বা বড়) ২ টি
কাঁচালঙ্কা ৪টে
লবঙ্গ গুঁড়ো হাফ চা চামচ
পেঁয়াজ কুঁচি ২ কাপ
আদা বাটা ১ চা চামচ
তেজপাতা ২টো
২টি ছোট টম্যাটো কুচি  
দারচিনি গুঁড়ো সামান্য
হলুদগুঁড়ো ২ চা চামচ
এলাচ ২-৩টি
লাল লঙ্কার গুঁড়ো স্বাদ অনুযায়ী
সরষের তেল পরিমান মত
গরম মশলা গুঁড়ো ১ চা চামচ
লবন স্বাদ অনুযায়ী

আরও পড়ুন- দোকানের স্বাদের নরম রসালো কালাকান্দ, পুজোয় এবার তৈরি হবে বাড়িতেই, দেখে নিন সহজ রেসিপি

যে ভাবে বানাবেন —

পমফ্রেট মাছে জল ঝরিয়ে নিয়ে অল্প নুন ও হলুদ দিয়ে মেখে ১০-১৫ মিনিট রেখে দিন। একটি কড়ায় তেল গরম করে তাতে ম্যারিনেট করা মাছগুলো হালকা করে ভেজে তুলে রাখুন। এরপর কড়ায় সরষের তেল গরম করে তাতে গোটা গরম মশলা ফোড়ন দিয়ে পেঁয়াজ কুঁচি দিয়ে হালকা সোনালি রঙের হওয়া পর্যন্ত নেড়েচেড়ে নিন। এর পর এতে কাঁচা লঙ্কা কুচি ও আদা বাটা দিয়ে নাড়তে থাকুন। একে একে হলুদ গুঁড়ো, লাল লঙ্কা গুঁড়ো দিয়ে ভাল করে কষতে থাকুন। রান্নার মাঝে অল্প জলের ছিটে দিন যাতে মশলা লেগে না যায়। এর পর টম্যাটো কুচি দিয়ে কষতে থাকুন যতক্ষণ না মশলা থেকে তেল ছাড়ছে। এর পর এতে আগে থেকে ভাজা মাছ দিয়ে দিন। প্রয়োজন মতো জল, নুন দিয়ে ঢাকা দিন এবং ঢিমে আঁচে রান্না করুন। ১০-১২ মিনিট পর অল্প গরম মশলা আর সামান্য ধনেপাতা কুচি ছড়িয়ে আঁচ থেকে নামিয়ে নিন। গরম গরম পরিবেশন করুন জিভে জল আনা লোভনীয় পমফ্রেট কালিয়া।