করোনা মহামারীর প্রকোপে এখনও শুরু করা যায়নি রাজ্য তথা দেশের ফুটবল মরসুম। এখনও পুরোপুরি নিশ্চিত নয় কবে থেকে শুরু করা যাবে ফুটবল লিগগুলি। সবটাই নির্ভর করছে করোনা পরিস্থিতির উপর। যদিও সবরকম প্রস্তুতি সেরে রাখছে সর্বভারতীয় ফুটবল সংস্থা। একটি সম্ভাব্য সময় ধরে এগোচ্ছে সব কাজ। এরইমধ্যে বাংলার ফুটবল প্রেমিদের জন্য সুখবর দিল এআইএফএফ। আগামী বছরের আইলিগ হতে চলেছে কলকতায়। করোনা সংক্রমণ রুখতে যে কোনও একটি ভেন্যুতে গোটা টুর্নামেন্ট করার পরিকল্পনা ফেডারশনের। তাই বৈঠকের পর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে যে ২০২০ ২০২১ মরসুমের আইলিগ আয়োজিত হবে কলকাতায়।

আরও পড়ুনঃআগস্টে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সিরিজ দিয়েই কি মাঠে ফিরছ টিম ইন্ডিয়া

রাজ্য সরকারের ছাড়পত্র মিলে গেলে খুব শীঘ্রই চূড়ান্ত ঘোষণা করা হবে ফেডারেশনের তরফ থেকে। সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডরেশনের ভার্চুয়াল লিগ কমিটির বৈঠকের পর এআইএফএফ’র সহ-সভাপতি সুব্রত দত্ত জানিয়েছেন, ‘খেলাকে বাঁচিয়ে রাখতে এই অতি মহামারী পরিস্থিতিতে সবার থেকে আমরা বাড়তি প্রচেষ্টা আশা করছি। প্রত্যেক ফুটবলার এবং ফুটবলের সঙ্গে জড়িত প্রত্যেকটি মানুষের সুরক্ষার দিকটি আমাদের খেয়াল রাখতে হবে।’ সবকিছু ঠিকঠক থাকলে সেপ্টেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহ থেকে শুরু হতে পারে দ্বিতীয় ডিভিশন আই লিগ। তবে ক্লাবগুলো যাতে তাঁদের দল গুছিয়ে নেওয়ার পর্যাপ্ত সময় পায় সেদিকটাও ভেবে দেখছে ফেডারেশন।

আরও পড়ুনঃআগামী সপ্তাহেই ঘোষণা আইপিএলের ক্রীড়াসূচি, হবে পূর্ণাঙ্গ টুর্নামেন্ট

আরও পড়ুনঃবাঙালি ফুটবলার তুলে আনতে অভিনব উদ্যোগ আইএফএ সচিবের

আই লিগ কলকাতায় করার ব্যাপারে প্রয়োজনীয় অনুমতির জন্য রাজ্য ফুটবল সংস্থাকে রাজ্য সরকারের সঙ্গে কথা বলতে বলা হয়েছে। সেই অনুমতি পাওয়া গেলে চলতি মাসের শেষে অথবা অগাস্টের শুরুতে আই লিগ কলকাতায় করার ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়ে নেবে ফেডারেশন। ইতিমধ্যেই ক্রীড়ামন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস এর সঙ্গে কথা বলেছেন আইএফএ সচিব জয়দীপ মুখার্জি। সব রকম সাহায্যের আশ্বাসও দিয়েছেন ক্রীড়ামন্ত্রী। বারাসাত স্টেডিয়াম, কল্যাণী স্টেডিয়াম, কিশোর ভারতী স্টেডিয়াম, আর ময়দানের ৩ ঘেরা মাঠে হবে আই লিগের ম্যাচ।  মোট ৭ থেকে ৮টি স্টেডিয়াম আইলিগের ম্যাচের জন্য রেডি করে দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে প্রশাসন। আই লিগ এর মতোই আইএসএল এর ম্যাচও হবে একটা ভেন্যুতেই। সেক্ষেত্রে বেছে নেওয়া হতে পারে গোয়া বা কেরলকে।