ক্রীড়া বিশ্বে অনেক দিন আগেই থাবা বসিয়ছে করোনা ভাইরাস। ক্রীড়া ব্যক্তিত্বদের মধ্যেও দ্রুত গতিতে বাড়ছে এই মারণ ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা।  পৃথিবী জুড়ে বন্ধ যত নামকরা স্পোর্টিং ইভেন্ট। সংক্রমণ রুখতে সোশাল  মিডিয়ায়  সচেতনতার বার্তাও দিচ্ছেন মেসি, রোনাল্ডো, কোহলি, রোহিতরা। চিকিৎসার জন্য যথাসাধ্যে ব্যবস্থা করছে সকল দেশের নির্বাচিত সরকার। কিন্তু তারপরও রোখা গেল প্রাণ হানি। এতদিন পর্যন্ত বেশ কিছু ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব আক্রান্তের খবর আসলেও, ছিল না প্রাণহানির ঘটনা। অবার করোনা ভাইরাস কেড়ে নিল ২১ বছরের তরুণ এক ফুটবল কোচের প্রাণ। নাম ফ্রান্সিসকো গার্সিয়া। খবর প্রকাশ্যে আসতেই শোকের ছায়া ক্রীড়া বিশ্বে। একইসঙ্গে বাড়ছে মারণ ভাইরাসের আতঙ্কও।

আরও পড়ুনঃকরোনার থাবা জাপানেও,মঙ্গলবার অলিম্পিকের ভবিষ্যৎ নিয়ে বৈঠক আইওসির

ছোট বেলা থেকেই ফুটবল কোচ হওয়ার স্বপ্ন ছিল ফ্রান্সিসকো গার্সিয়ার। তাই মাত্র ২১ বছর বয়সেই  ফুটবল কোচিংয়ের সঙ্গে যুক্ত হন তিনি।  স্পেনের মালাগার ক্লাব আটলেটিকো পোর্তাদা আলতা-র ছোটদের কোচ হিসেবে কাজ করছিলন তরুণ ফুটবল কোচ। স্পেনের সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পরে গার্সিয়াকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। প্রথমে ভাবা হয়েছিল, সাধারণ সর্দি-কাশি জ্বরই হয়েছে তাঁর। কিন্তু ডাক্তারি পরীক্ষার পরে করোনা ধরা পরে গার্সিয়ার শরীরে । পাশাপাশি লিউকোমিয়াতেও আক্রান্ত হওয়ায় আর বাঁচানো সম্ভব হয়নি তরুণ ফুটবল কোচ গার্সিয়াকে।

আরও পড়ুনঃকরোনা নিয়ে ভিডিও বার্তা রোহিতের, সকলকে সচেতন ও সুস্থ থাকার পরামর্শ

আরও পড়ুনঃকিবু না হাবাস, পরের মরসুমে কে ধরবেন পাল তোলা নৌকার হাল

করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ বাজ়ছে স্পেনে। ইউরোপীয় দেশগুলির মধ্যে ইতালির পর সব থেকে বেশি স্পেনেই থাবা বসিয়েছে এই মারণ ভাইরাস। এখনও পর্যন্ত স্পেনে ৩০০ জনেরও বেশি মানুষের প্রাণ কেড়েছে করোনা। ফলে ক্রমশ ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি হচ্ছে স্পেনে। সংক্রমণ রুখতে আগেই স্পেনে বন্ধ করা হয়েছে লা লিগা সহ সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ টুর্নামেন্ট। স্বেচ্ছা আইসোলেশনে রয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সেলোনা দল। কিন্তু ফ্রান্সিসকো গার্সিয়ার মৃত্যুর খবরে শোকর ছায়া স্পেন সহ গোটা ক্রীড়া বিশ্বে।