Asianet News BanglaAsianet News Bangla

জগদীপ ধনখড়কে উপরাষ্ট্রপতি পদে প্রার্থী করার কারণ কি শুধুই জাঠ ভোট? কি ভাবছে বিজেপি

জাতপাতের কঠিন অঙ্কে উররানোর পাশাপাশি কৃষকদের ক্ষত মেরামতি করা ও জাতীয় রাজনীতিতে কংগ্রেসকে আরও দুর্বল করাই বিজেপির  মূল টার্গেট তা আরও একবার স্পষ্ট হয়ে গেল উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনের ক্ষেত্রে।

BJP has nominated Jagdeep Dhankhar for Vice President post  to get Jat votes weaken Congress bsm
Author
Kolkata, First Published Jul 17, 2022, 3:39 PM IST

এনডিএ-র  উপরাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী জগদীপ ধনখড়। আগামী লোকসভা নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে জগদীপ ধনখড়ই এখন বিজেপির তুরুপের তাস। জাতপাতের কঠিন অঙ্কে উররানোর পাশাপাশি কৃষকদের ক্ষত মেরামতি করা ও জাতীয় রাজনীতিতে কংগ্রেসকে আরও দুর্বল করাই বিজেপির  মূল টার্গেট তা আরও একবার স্পষ্ট হয়ে গেল উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনের ক্ষেত্রে। তেমনই বলছেন রাজনৈতিক বিশেষদজ্ঞরা। কারণ আদিবাসী সম্প্রদায়ের প্রতিনিধি হিসেবে দ্রৌপদী মুর্মুকে রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করেছে বিজেপি। দ্রৌপদীর জয় এখন সময়ের অপেক্ষায়। দ্রৌপদী ইস্যুতে ইতিমধ্যেই কংগ্রেসের সহযোগী দলগুলি ভিন্ন সুরে গান গাইতে শুরু করেছে। যার অর্থ জাতীয় রাজনীতিতে আরও কোনঠাসা হচ্ছে কংগ্রেস। 

যাইহোক জগদীপ ধনখড় একজন জাঠ সম্প্রদায়ের  মানুষ। তারপর কৃষক পরিবার থেকে উঠে আসা এক মেধাবী সন্তান। তিনি বিদগ্ধ আইনজীবী। সেই জগদীপ ধনখড়কে প্রার্থী করে রীতিমত তাক লাগিয়ে দিয়েছে বিজেপি। পাশাপাশি হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ ও রাজস্থানের জাঠ ভোটও নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে অনেকটা এগিয়ে গেছে। কারণ  দিল্লির উপকণ্ঠে চলা কৃষক আন্দোলনের কারণে  কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে অসন্তোষ তৈরি হয়েছিল কৃষকদের মধ্যে। অনেক ক্ষেত্রে তাঁরা কংগ্রেসের সঙ্গে যাওয়ার কথা বলেছিল। উত্তরভারতে কৃষকদের একট বড় অংশই জাঠ সম্প্রদায়ের মানুষ। সেক্ষেত্রে জগদীপ ধনখড়কে উপরাষ্ট্রপতি পদে প্রার্থী ঘোষণা করে সেই ক্ষত মেরামত করার ক্ষেত্রে একটি বড় পদক্ষেপ। 

অন্যদিকে পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন জগদীপ ধনখড়। ২০১৯ সাল থেকেই এই রাজ্যের সাংবিধানিক প্রধান হিসেবে কাজ করছেন তিনি। সেক্ষেত্রে তাঁর যে অভিজ্ঞতার ঝুলিও ভর্তি রয়েছে তা স্পষ্ট করে বলা যেতেই পারে। যা উপরাষ্ট্রপতি হিসেবে তাঁর প্লাসপয়েন্ট হিসেবেই তুলে ধরছে বিজেপি। আইনজীবী হওয়ায় দেশের সংবিধান সম্পর্কে তাঁর জ্ঞান রয়েছে। কারণ উপরাষ্ট্রপতি ক্ষমতাবলে রাজ্যসভার চেয়ারম্যান হন। সেক্ষেত্র রাজ্যসভাও কেন্দ্রীয় সরকারের নিয়ন্ত্রণে থাকবে। রাজ্যসভায় বিজেপি ও সহযোগীরা সংখ্যার বিচারে এগিয়ে থাকলেও সেখানে বিরোধীরা রীতিমত সক্রিয়। বিশেষত তৃণমূল কংগ্রেস ও বাম সাংসদরা। 

১৬তম উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনে রাজ্যসভার ২৩৩ জন নির্বাচিত প্রতিনিধি, ১২ জন রাজ্যসভার মনোনীত সদস্য ও লোকসভার ৫৪৩ জন নির্বচিত সদস্য ভোট দেবেন। রাজ্যসভা ও লোকসভার একাধিক সদস্য জানিয়েছেন জগদীপ ধনখড়কে উপরাষ্ট্রপতি পদে প্রার্থী করার বিজেপির দিকে যাবে জাঠ ভোট। এমনিতেই জাঠ সম্প্রদায়ের মানুষ বরাবরই বিজেপির পক্ষেই রায় দিয়ে এসেছে। কিন্তু কৃষক আন্দোলনের কারণ কিছুটা দূরত্ব তৈরি হয়েছিল। যা জগদীপ ধনখড় উপরাষ্ট্রপতি হতে পুশিয়ে যাবে বলেও মনে করছেন তাঁরা। 

আরও পড়ুনঃ 

জগদীপ ধনখড় NDA-র উপরাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী , বাংলার রাজ্যপালেই সহমত বললেন বিজেপি নেতা জেপি নাড্ডা

দিল্লি পৌঁছালেন NDAর উপরাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী, এই রাজ্যে জগদীপ ধনখড়কে নিয়ে তরজা বিজেপি-তৃণমূলের

রাজ্যপাল থেকে উপরাষ্ট্রপতির আসনে বসতে চলেছেন জগদীপ ধনখড়, রইল তাঁর উত্থানের কাহিনি

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios