Asianet News Bangla

করোনার তৃতীয় তরঙ্গ নিয়ে শ্বেতপত্র প্রকাশ রাহুল গান্ধীর, 'জ্ঞানীবাবা' কটাক্ষ স্মৃতি ইরানির

  • করোনার তৃতীয় তরঙ্গ নিয়ে শ্বতপত্র প্রকাশ 
  • মোদী সরকারের সমালোচনা রাহুল গান্ধীর 
  • স্মৃতি ইরানি বললেন জ্ঞানী বাবা 
  • তীব্র কটাক্ষ করেন সম্বিত পাত্র 
Rahul gandhi releases white paper on coronavirus smriti irani slams gayani baba bsm
Author
Kolkata, First Published Jun 22, 2021, 3:41 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সমালোচনার পরেই তাঁর বিরুদ্ধে সরব হলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বিজেপি নেত্রী স্মৃতি ইরানি। তিনি দেশের করোনাভাইরাসের এই সংক্রমণের জন্য সরাসরি কংগ্রেস শাসিত রাজ্যগুলিকে দায়ি করে কাঠগড়ায় তুলেছেন রাহুল গান্ধীকে। 

স্মৃতি ইরানি সোশ্যাল মিডিয়ায় বার্তা দিয়ে রাহুল গান্ধীকে কটাক্ষ করে বলেন 'জ্ঞানী বাবা প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে জ্ঞানের মুক্ত ছড়িয়ে দিচ্ছেন। কিন্তু নিচের বিষয়গুলিতে তিনি মনোনিবেশন করেননি। 'তারপরেই স্মৃতি ইরানি বলেন করোনার দ্বিতীয় তরঙ্গ প্রথমে আছড়ে পড়তে শুরু করেছিলেন কংগ্রেস শাসিত রাজ্যগুলিতে। ভারতের করোনা আক্রান্তের সংখ্যা আর মৃত্যুর হারও সবথেকে বেশি কংগ্রেস শাসিত রাজ্যগুলিতে। এমনটাই মন্তব্য করেন স্মৃতি ইরানি। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মহামারি রুখতে কংগ্রেশ শাসিত রাজ্যগুলি যে উপযুক্ত পদক্ষেপ নিচ্ছে না সেই দিকেই আলোকপাত করেছেন।

'BJPকে চ্যালেঞ্জ জানাতে পারবে না তৃতীয় ফ্রন্ট', পাওয়ারের বাড়িতে বৈঠকের আগেই বিস্ফোরক প্রশান্ত কিশোর.
 

এখানেই থামেননি স্মৃতি ইরানি। তিনি কংগ্রেসের বিরুদ্ধে ভ্যাকসিন বিকেন্দ্রীকরণ আর গোলমাল তৈরির করার অভিযোগ তুলেছেন। তিনি বলেছেন টিকা নিয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত করেছে কংগ্রেস রাজ্যগুলি। তিনি বলেছেন টিকা দানের ক্ষেত্রে সবথেকে খারাপ অবস্থায় রয়েছে কংগ্রেস শাসিত রাজ্যগুলি। পাশাপাশি সোমবার থেকে কেন্দ্রীয় সরকারের নতুন ভ্যাকসিন নীতি শুরু হয়েছে। আর সেই দিনেই ৮০ লক্ষেরও বেশি মানুষকে টিকা দেওয়া হয়েছে বলেও জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। 

যোগী রাজ্যে ফের কি ফিরবে বিজেপি, ফয়দা লুঠতে কতটা তৈরি অখিলেশ-মায়াবতীরা

ঘটনার সূত্রপাত মঙ্গলবার সকালে রাহুল গান্ধীর ভার্চুয়ালি সাংবাদিক বৈঠক করেন। সেখানেই রাহুল বলেন, দেশে যখন করোনা সংকট চরমে তখন প্রধানমন্ত্রীর লক্ষ্য ছিল বাংলার নির্বাচনের দিকে। মোদীর বিরুদ্ধে সুর চড়িয়ে তিনি একটি শ্বেতপত্র প্রকাশ করেন। তারপরই দাবি করেন তৃতীয় তরঙ্গ মোকাবিলায় কেন্দ্রীয় সরকার কী কী পদক্ষেপ নিচ্ছে তার নীলনকসা প্রকাশ করা অত্যন্ত জরুরি। তিনি বলেন গোটা দেশই জানে করোনার তৃতীয় ঢুউয়ের সামনে দাঁড়িয়ে রয়েছি আমরা। তারপরেই রাহুল গান্ধী বলেন সঠিক পরিকল্পনা গ্রহণ করা হলে করোনা আক্রান্ত অনেক মৃতকেই বাঁচানো যেতে। প্রধানমন্ত্রীর কান্না দেশের মানুষকে বাচাতে পারবে না। আক্রান্তদের বাঁচাতে পারে একমাত্র অক্সিজেন। একই সঙ্গে রাহুল গান্ধী দেশের আর্থিক সংকট আর পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি ইস্যুতেও সরব হন। 

ইন্দিরা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পর অনিরুদ্ধ বসু, নারদ মামলা থেকে সরলেন সুপ্রিম কোর্টের বাঙালি বিচারপতি ...

শুধু স্মৃতি ইরানি নয়। রাহুল গান্ধীর এই মন্তব্যের পর সরব হয়েছে কর্ণাটক বিজেপি। রাজ্য বিজেপির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ভাইরাসটি রাহুল গান্ধীর মত বুদ্ধিমান আর রূপান্তরকারী নয়। বিজেপি মুখপাত্র সম্বিত পাত্রও সরব হয়েছেন। তিনি বলেছেন এটি খুবই দুর্ভাগ্যজনক যে এক দিনে ৮০ লক্ষ মানুষকে টিকা দেওয়ার পরেই রাহুল গান্ধী এজাতীয় মন্তব্য করেছেন।তারপরেই রাহুলের বিরুদ্ধে বলেন ভার্চুয়ার প্রেস কনফারেন্স না করে কংগ্রেস শাসিত রাজ্যগুলির দিকে নজর দেওয়া জরুরি। কারণ ওই রাজ্যগুলির কোভিড পরিস্থিতি রীতিমত শোচনীয়। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios