করোনা আক্রান্তের সংখ্য়া ক্রমশই বাড়ছে দেশ তথা রাজ্য়ে। তবে করোনা আতঙ্কের মাঝেই এল সুখবর। নিজামুদ্দিনে যোগ দেওয়া ধর্মপ্রাণ শিক্ষকের  করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে।  রবিবার তাকে এমআর বাঙ্গুর হাসপাতাল থেকে ডিসচার্জ করে দেওয়া হবে।

আরও পড়ুন, করোনা মোকাবিলায় বিপুল খরচ, নতুন নিয়োগ বন্ধের সিদ্ধান্ত রাজ্যের


করোনাভাইরাস আতঙ্কের মধ্যেই বিতর্কের কেন্দ্রে দিল্লির নিজামুদ্দিনের ধর্মীয় সমাবেশ। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, তবলীগ-ই-জামাত-এর এই ধর্মীয় সমাবেশ থেকেই দেশের ১৪ টি রাজ্যে ছড়িয়ে পড়েছে করোনা সংক্রমণ। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের যুগ্মসচিব আগরওয়াল জানিয়েছেন, দেশে এখনও পর্যন্ত এমন ৬৪৭ জন করোনা আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে।  যারা প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে এই ধর্মীয় সমাবেশের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, দেশে মোট করোনা আক্রান্তের ২৮.১ শতাংশই দিল্লির নিজামুদ্দিনের সঙ্গে যোগ রয়েছে।

আরও পড়ুন, 'জনসংখ্য়ার অনুপাতে করোনা আক্রান্তের সংখ্য়া অনেক কম', অভয় বার্তা দিলেন চিকিৎসক কুনাল সরকার

অপরদিকে, নিজামউদ্দীন ফেরত দক্ষিণ ২৪ পরগনা বারুইপুরের ধপধপির বছর বাহাত্তরের বাসিন্দা মুসা তালিব। ২৩ শে মার্চ বিমানে করে কলকাতায় ফেরেন তিনি। প্রশাসনের তরফে তাঁকে সরাসরি  এমআর বাঙ্গুর হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করে দেওয়া হয়। এরপর দুই ধাপে পরপর তার লালা রসের পরীক্ষা করা হয়। তবে পরপর দুই বারই পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ আসায় চিকিৎসকরা স্পষ্ট করেন করোনা মুক্ত মুসা তালিব। রবিবার তাকে হাসপাতাল থেকে ডিসচার্জ করে দেওয়া হবে। দিল্লির নিজামুদ্দিন ফেরত বারুইপুরের এই বাসিন্দা রাজ্য সরকারের ভূমিকায় অত্যন্ত খুশি। 

 

 রাজ্য়ে করোনায় আক্রান্ত এবার এক নার্স, পরিবারকে কোয়ারেনটাইনে থাকার নির্দেশ স্বাস্থ্য দফতরের

করোনা আক্রান্তদের এমআর বাঙ্গুরে স্থানান্তর ঘিরে তুলকালাম, অভিযোগ নিয়ে অবস্থান বিক্ষোভে নার্সরা

পাঁচিল টপকালেই ভাইরাস এক্সপার্ট সেন্টার, তবুও মুখ ফিরিয়ে মেডিক্য়াল কলেজ