পেটিএম থেকে প্রতারণার শিকার হলেন শোভাবাজারের ব্যবসায়ী। পেটিএম থেকে নিজের মোবাইলে ৫০ টাকার রিচার্জ করেছিলেন শোভাবাজার বটতলা থানার দর্জি পাড়ার বাসিন্দা বিদ্য়ুৎ কুমার মাইতি। এরপরই তাঁর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে গায়েব হল ১ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা। ইতিমধ্য়েই ওই ব্যবসায়ী  থানায় অভিযোগ জানিয়েছেন, তদন্ত শুরু করেছে লালবাজার।

আরও পড়ুন, প্রেমে প্রত্যাখ্যান পেয়ে ধারাল অস্ত্রের কোপ, এসএসকেএম থেকে বাড়ি ফেরা হল না অঙ্কিতার

শনিবার দুপুরে ওই ব্যবসায়ী বিদ্যুৎ কুমার মাইতি নিজের মোবাইল থেকেই ফোনের রিচার্জ করার চেষ্টা করছিলেন। পরপর অনেকবার ব্যর্থ হওয়ার পর অবশেষে ৫০ টাকা রিচার্জ করতে সক্ষম হন তিনি। বিদ্যুৎবাবু জানিয়েছেন, এরপরই তাঁর মোবাইলে মেসেজ আসে। পেটিএম-র কেওয়াইসি আপডেট করতে হবে বলে। এবং ওই মেসেজে সাহায্যের জন্যএকটি হেল্প লাইন নম্বরও দেওয়া হয় বিদ্যুৎবাবুকে। 

তিনি ওই নম্বরে ফোন করলে তাঁকে দুটি মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করতে বলা হয় এবং  সেখানেই ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের তথ্য আপডেট করতে বলা হয়।  এই প্রক্রিয়া শেষ করার জন্য তাঁকে  ১ টাকা রিচার্জ করতেও বলা হয়। সেই কথা মেনেই পরপর ধাপ গুলি অনুসরণ করেন তিনি। এরপরই ওই ব্যবসায়ীর দুটি রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাঙ্কের অ্যাকাউন্ট থেকে মোট আট দফায় ১ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা গায়েব হয়ে যায়। এরপরই সন্দেহ হয় ওই ব্যবসায়ীর। এরপরেই  মাথায় হাত ওই ব্যবসায়ী যুবকের। 

আরও পড়ুন, বহুদিন পর রবিবারের বাজার সস্তা, বাঙালির ব্য়াগ থেকে উঁকি দিচ্ছে মাছের লেজ

শনিবার রাতেই শোভাবাজারের ব্যবসায়ী বিদ্যুৎ কুমার মাইতি, লালবাজারে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। লালবাজারের গোয়েন্দারাও এই ঘটনায় রীতিমত অবাক যে জালিয়াতি চক্র নিত্য় নতুন উপায় বের করছে ব্যাঙ্কের টাকা  লুঠ করার জন্য।